শনিবার, ০৮ মে ২০২১
Logo
লকডাউনে জনশূন্য বাসস্ট্যান্ড

লকডাউনে জনশূন্য বাসস্ট্যান্ড

করোনা সংক্রমণ রোধে সারাদেশে চলছে ৮ দিনের লকডাউন। আজ শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) এই লকডাউনের তৃতীয় দিন। দেশব‌্যাপী চলমান লকডাউনের কারণে সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। ফলে রাজধানীর ব্যস্ততম বাস টার্মিনাল গাবতলী এখন জনশূন্য-প্রায়। দুই-একজন কন্ট্রাক্টর ও হেল্পার ছাড়া টার্মিনালের কাউন্টারগুলোয় কেউ নেই। একেবারে খা-খা করছে চারিদিক।


শুক্রবার গাবতলী এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, লকডাউনে রাজধানীর টার্মিনাল থেকে বাস ছেড়ে যায়নি। টার্মিনাল ফাঁকা, যাত্রীশূন্য। নেই হকারের হাঁক-ডাক। মাঝে মাঝে দু–একজন করে যাত্রী আসছেন। হাতে–কাঁধে ব্যাগ ও জিনিপত্র নিয়ে বসে আছেন। গাবতলী বাস টার্মিনালের কাউন্টার বন্ধ। যারা আসছেন তারা বিকল্প উপায়ে গন্তব্যে যাচ্ছেন।


শ্যামলী পরিবহনের কাউন্টার কর্মী আনোয়ার ইসলাম বলেন, ‘লকডাউন থাকায় কাউন্টার বন্ধ। কাজ নেই, তাই পরিচিতদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে সময় কাটাতে টার্মিনালে এসেছি।’


মহাখালী বাস টার্মিনালেও একই অবস্থা। অন্য সময়ে এনা‌ পরিবহনের টিকিটের জন্য দীর্ঘ সারি থাকে। আর আজ কাউন্টারই বন্ধ। এরপরও অনেক কর্মী টার্মিনালে এসেছেন, অলস সময় কাটাচ্ছেন।


এ বিষয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ‘সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে সব গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। টার্মিনালগুলোর মধ্যে গণপরিবহন রাখা হয়েছে। আমাদের বিভিন্ন বাস কোম্পানির কর্মীরা সেখানে মাঝে-মধ্যে গিয়ে পাহারা দিচ্ছে। কারণ অনেকদিন বাস এভাবে এক জায়গায় রাখা থাকলে কিছু মিসিং হতে পারে। কারণ অনেকেই বাসের কিছু যন্ত্রাংশ খুলে নিয়ে যেতে পারে। তাই এই সব কর্মীকে পাহারার জন্য মাঝে মধ্যে বাস টার্মিনালে পাঠানো হয়ে থাকে।

সংযুক্ত থাকুন