শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১
Logo
যশোরে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে সরকারি পরিপত্র লঙ্ঘনের অভিযোগ : সাংবাদিককে হুমকি

যশোরে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে সরকারি পরিপত্র লঙ্ঘনের অভিযোগ : সাংবাদিককে হুমকি

বলরাম ঘোষ নামে এক ব্যক্তিকে অবৈধভাবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি করার অভিযোগ উঠেছে। বলরাম ঘোষ অবিবাহিত হলেও তাকে অভিভাবক সাজিয়েছেন বহিলাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক তাছলিমা খাতুন।

 

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের বক্তব্য জানতে চাইলে তার স্বামী বাস শ্রমিক (স্ট্যাটার) মহসিন আলী ওরফে গ্যাড়া মহসিন চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অমেদুল ইসলামকে ফোন করে শাসিয়েছেন।

 

সংশ্লি¬ষ্ট সূত্রে জানা যায়, পরিপত্র লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে বলরাম ঘোষকে অভিভাবক সাজিয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি করা হয়। গত বছরের (২০২০) ২৯ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন আব্দুল লতিফ নামে একজন অভিভাবক।

 

ওইসময় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু ২৫ অক্টোবর ওই অবিবাহিত ব্যক্তিকেই সভাপতি করে কমিটি অনুমোদন দেন তিনি। বিষয়টি জানতে পেরে চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি ওই অভিভাবক চৌগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

 

পরে উপজেলা চেয়ারম্যান বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে স্কুলের প্রধানশিক্ষক তাছলিমা খাতুনের কাছে মোবাইলফোনে বক্তব্য নেয়া হয়। পরে তার স্বামী চৌগাছার বাস শ্রমিক (স্টাটার) মহসিন আলী ওরফে গ্যাড়া মহসিন চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অমেদুল ইসলামের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে তাকে শাসান।

 

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোস্তানিছুর রহমান লিখিত অভিযোগ পাওয়ার বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।

 

তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কমিটি অনুমোদনের আগেই এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ থাকলেও কেন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি? প্রশ্নে তিনি কোনো জবাব দেননি। বহিলাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাছলিমা খাতুনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিন-চার মাস আগে গ্রামের লোকজন ডেকে তাদের পরামর্শে তাকে সভাপতি বানানো হয়েছে। সরকারি পরিপত্র মেনে অভিভাবক নয় এমন কাউকে সভাপতি বানানো যাবে?

 

প্রশ্নে তিনি জানেন না বলে জানান। আবার পরক্ষণেই বলেন, বলরাম ঘোষকে তার ভাগ্নির (বোনের মেয়ে) অভিভাবক হিসেবে সভাপতি করা হয়েছে। মামা কি বৈধ অভিভাবক হতে পারেন? প্রশ্নে তিনি নিরব থাকেন। আর ওই ভাগ্নি তো আপনার স্কুলের নিয়মিত শিক্ষার্থীও নয়, শুধু হাজিরা খাতায় নাম লেখা আছে প্রশ্নে তিনি বলেন, আপনারা এ বিষয়ে ঝামেলা করছেন কেন? দেড় বছরই তো। আবার যখন কমিটি হবে তখন ঠিক করে দেব।

সংযুক্ত থাকুন