রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১
Logo
মোংলায় পশুর নদীতে আবারও কয়লা বোঝাই কার্গো ডুবি

মোংলায় পশুর নদীতে আবারও কয়লা বোঝাই কার্গো ডুবি

মোংলা বন্দরের পশুর নদীতে আবারো ডুবে গেছে কয়লা বোঝাই একটি কার্গো জাহাজ। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বন্দর জেটির অপর পাশের কাটাখালী নামক এলাকায় জাহাজটি ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই জাহাজটিতে থাকা ৯জন স্টাফ ও একজন নিরাপত্তাকর্মী সাঁতরিয়ে কুলে উঠে যায়।

 

ডুবে যাওয়া কার্গো জাহাজ এম,ভি ইফসিয়া মাহিন’র মাষ্টার মো: শাহালম জানান, মোংলা বন্দরের হাড়িবাড়িয়ার ৬ নম্বরে থাকা একটি বিদেশী জাহাজ থেকে ২৮ মার্চ রবিবার ভোরে কয়লা বোঝাই করেন তারা। কার্গোটিতে প্রায় ৪শ মেট্টিক টন কয়লা বোঝাই শেষে সকাল ৯টার দিকে পশুর নদীর বানীশান্তা বাজার বয়ায় অবস্থান নেয়।

 

সেখানে থাকাকালে মঙ্গলবার দুপুরের আগে প্রচন্ড পানির স্রোতে বয়া থেকে কার্গো জাহাজ বাঁধা রশি ছিড়ে যায়। এ সময় এম,ভি ইফসিয়া মাহিনসহ প্রায় ১০/১২টি জাহাজ ওই বয়া থেকে ছুটে যায়। পরে ওই জাহাজগুলো দুর্ঘটনা এড়াতে যে যার মত নিরাপদে সরতে থাকে। এ সময় ওই সকল কার্গোর মধ্যে একটির সাথে ধাক্কা লাগে ইফসিয়া মাহিনের।

 

এতে ইফসিয়া মাহিনের বাম পাশের হ্যাচ ফেটে যায়। তারপরও জাহাজটি বাঁচাতে মাষ্টার শাহালম প্রাণপন চেষ্টা করেন। জাহাজটি ভাসতে ভাসতে বানীশান্তা থেকে কাটাখালী গেলে সেখানে ফাটা জায়গা হতে পানি উঠতে উঠতে এক পর্যায়ে ডুবে যায়। তবে জাহাজের স্টাফ ও এক নিরাপত্তা কর্মী সাঁতরিয়ে নদীর কুলে উঠে যান।

 

 

তবে ডুবন্ত জাহাজটি পশুর চ্যানেলের বাহিরে চরের দিকে ডুবায় মুল চ্যানেল নিরাপদ রয়েছে বলে জানিয়েছে বন্দরের হারবার বিভাগ। ডুবে যাওয়া জাহাজটির কয়লা নিয়ে যশোরের নওয়াপাড়ায় যাওয়ার কথা ছিল। জাহাজটির ধারণক্ষমতা ছিল ৫শ মে: টন। আর বোঝাই করা হয়েছিল ৪শ মে: টন। এর আগে গত ২৮ ফেব্রুয়ারী রাতে মোংলা বন্দরের পশুর নদীতে ৭শ মে: টন কয়লা নিয়ে ডুবে যায় এম,ভি বিবি-১১৪৮ নামক একটি কার্গো জাহাজ।

সংযুক্ত থাকুন