বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১
Logo
মণিরামপুরে ভিক্ষুকের চাল খোয়া

মণিরামপুরে ভিক্ষুকের চাল খোয়া


মণিরামপুর কুলসুম বেগম নামের এক ভিক্ষুকের সারাদিনের ভিক্ষার প্রায় ৫ কেজি চাল খোয়া গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে থানার সামনে চাউল পট্টিতে এ ঘটনাটি ঘটেছে।


চাল ব্যবসায়ী হরিপদ’র দোকানের পাশে চালের প্যাকেট রেখে ওই ভিক্ষুক গিয়েছিল তরকারি বাজারে কিছু সাহায্যের জন্য। এসে চালসহ প্যাকেট না পেয়ে অঝোরে কাঁদতে থাকে কুলসুম বেগম। উপজেলার ভরতপুর গ্রামের ইজ্জত আলীর স্ত্রী ভিক্ষুক কুলসুম।


কুলসুমের প্যাকেটে শুধু চাল ছিলনা, বাড়ির বাচ্চাদের জন্য মানুষের দেয়া কিছু পুরাতন কাপড় এবং বিস্কুট ছিলো। তার সবই খোয়া গেলে অঝোরে কাঁদতে থাকে দাঁড়িয়ে। এক পর্যায় বাজারের লোকজন তাকে পুনরায় সাহায্য হিসেবে চাল-তরকারি দিয়ে বাড়িতে পাঠায়।


কান্নাজড়িত কন্ঠে কুলসুম বেগম জানায়, সোমবার গ্রামে বের হতে পারেনি তাই, বাড়িতে নেই কোন খাবার ব্যবস্থা। সোমবার গ্রাম থেকে চাল কর্জ করে খাওয়া-দাওয়া হয়েছে তাদের বাড়িতে। মঙ্গলবার সকাল থেকে কয়েকটি গ্রামে ঘুরে প্রায় ৫ কেজি চাল হয় তার। কুলসুম বেগমের এমন অসহায় অবস্থা দেখে ব্যবসায়ী সাধন কুন্ডু, আনোয়ারুল হোসেনসহ কয়েকজন ব্যবসায়ী তার সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন।

সংযুক্ত থাকুন