বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১
Logo
পায়ের ব্যান্ডেজ খুলতেই বেরিয়ে এলো ৪৮ বোতল ফেনসিডিল

পায়ের ব্যান্ডেজ খুলতেই বেরিয়ে এলো ৪৮ বোতল ফেনসিডিল

বৃহস্পতিবার দুপুরে য শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া সাতমাইল এলাকায় এক অভিনব মাদক সাপ্লাইয়ারকে আটক করেছে পুলিশ। পায়ে ব্যান্ডেজ করে অসুস্থ্য সেজে ব্যান্ডেজের ভিতর ফেনসিডিল বহন করার সময় ধরা পড়ে সে।


এ সময় তার প্রাইভেট কার চালকও আটক হয়েছে। বিষয়টি বেশ কাকতালিয় বটে! ডান পা ভেঙ্গেছে পুলিশের চোখে ধুলো দিতে এমন কৌশল এঁটে সারা পায়ে ব্যান্ডেজ করে প্রাইভেটকারের সিটে হেলান দিয়ে বসে ছিলেন মাদক সাপ্লাইয়ার জামাল।


পুলিশ গাড়ি থামাতেই চোখ-মুখে ভয়ের ছাপ ফুটে ওঠে। ফ্যাকাশে হয়ে যায় মুখ। এতে সন্দেহ বাড়ে পুলিশের। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে শুরু হয় পুলিশের তল্লাসী। দেহ তল্লাশি করে পায়ের ব্যান্ডেজ খুলতেই বেরিয়ে আসে ৪৮ বোতল ফেনসিডিল।


এসময় মাদক পাচারকারী যুবক জামাল হোসেন (৪৫) ছাড়াও তার গাড়িচালক আজিজুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ। জব্দ করা হয়েছে প্রাইভেটকারটিও।


মাদক পাচারকারী জামাল মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার পয়সা গ্রামের বাসিন্দা। প্রাইভেটকার চালক আজিজুলের বাড়ি শার্শার কাজিরবেড় গ্রামে।


শার্শা থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রবিউল ইসলাম জানান, আটক জামালকে বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর আদালতে হাজির করার পর বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সংযুক্ত থাকুন