মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১
Logo
নওয়াপাড়ায় একটি হুইল চেয়ারের অভাবে অচল ,ইমান আলী

নওয়াপাড়ায় একটি হুইল চেয়ারের অভাবে অচল ,ইমান আলী

নওয়াপাড়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড ধোপাদী গ্রামের ইমান আলী। পেশায় ছিলেন ভ্যান চালক। অসুস্থ্য হয়ে যাওয়ার পরেও অনেক কষ্ট করে ভ্যান চালিয়ে সংসারের চাকা সচল রাখতে চেষ্টা করেছিনে।


কিন্তু দুর্ঘটনায় মেরুদন্ডের আঘাতের পরিমাণ ছিল অনেক বেশি। যেকারণে ভ্যানের চাকা ঘুরিয়ে সংসারের চাকা আর সচল রাখতে পারেনি। তাই বাধ্য হয়ে স্ত্রী সুক্কোলী বেগম ধোপাদী উত্তর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের কোণায় বসে শিক্ষার্থীদের কাছে বাদাম বিক্রি করে কোন রকম সংসারের হাল ধরে রেখেছেন।


কিন্তু তাতে কি আর সংসার চলে। কোন রকমে দিন পার হচ্ছে তাদের। তাই চিকিৎসা কিংবা ওষুধ তাদের কাছে এখন কল্পনা হয়ে দেখা দিয়েছে। তার উপর নিজের চলার জন্য হুইল চেয়ার কেনাতো দু:স্বপ্ন মাত্র।


সাংসারে একমাত্র ছেলে নিজের সংসার চালাতে হিমশিম খায় তাই স্ত্রী জুটমিলে কাজ করে কোন রকম নিজের সংসার চালিয়ে নিতে পারলেও বাবা-মা‘র ব্যয়ভার বহন করা দু:সাধ্য হয়ে দাড়িয়েছে। অসুস্থ্য ইমান আলী সারাদিন বাড়ির সামনে বসে থাকে। রাস্তা দিয়ে যে যায় তাকে ডেকে নিজের অসহায়ত্বের কথা বলে কিছু সহযোগীতা কামনা করে।


কিন্তু সারাদিন এক জায়গায় বসে থেকে দিন দিন আরও অসুস্থ্য হয়ে পড়ছে। অনেক কষ্ট করে মাঝে মাঝে দুই হাতে দুটি লাঠি নিয়ে অন্যের সাহায্যে কোন রকম দাড়িয়ে দুই এক পা হাটতে পারলেও নিজের জন্য কোন কাজে আসেনা।


ফলে একটি হুইল চেয়ার এখন তার জীবনের অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ, তার অসুস্থ্যতা থেকে সুস্থ্য হতে হলে একটি হুইল চেয়ার খুবই জরুরী হয়ে দাড়িয়েছে।


মানুষের মাঝে সময় কাটানো কিংবা সাহায্য সহযোগীতার জন্য একটি হুইল চেয়ার ছাড়া কোন ভাবেই সম্ভব হচ্ছেনা। তাই বিত্তবানদের নিকট ওই দরিদ্র ইমান আলীর একটি দাবি আর হলো একটি হুইল চেয়ার।

সংযুক্ত থাকুন