শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১
Logo
দিঘলিয়ায় জুট মিলে অগ্নিকাণ্ড প্রায় ৪০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি : ৪ শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ

দিঘলিয়ায় জুট মিলে অগ্নিকাণ্ড প্রায় ৪০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি : ৪ শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ

দিঘলিয়ায় জুট মিলের অগ্নিকাণ্ডে পাঁচটি মেশিনসহ অর্ধ কোটি টাকার পাট পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এ সময় আসলাম, রবিউল, আকাশ ও হেলেনাসহ চারজন শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়েছে।

 

রবিবার বেলা পৌঁনে ১২টার দিকে দিঘলিয়া উপজেলার জামান জুট মিল করপোরেশনে এ অগ্নিকাণ্ডের র ঘটনা ঘটে। এদিকে গুরুতর অগ্নিদগ্ধ আসলামকে (৪৫) উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়া অগ্নিদগ্ধ রবিউল ইসলামকে (৩২) স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি ও বাকি দু’জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

 

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, রবিবার বেলা পৌঁনে ১২টার দিকে দিঘলিয়ার জামান জুট মিল করপোরেশনের হার্ড ওয়েস্ট মেশিন থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহুর্তের মধ্যে আগুন জুট মিলের অভ্যন্তরে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে দিঘলিয়া ও দৌলতপুরের ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

এ সময় আগুন নেভাতে গিয়ে আসলাম, রবিউল, আকাশ ও হেলেনাসহ চারজন শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আসলামকে উদ্ধার করে প্রথমে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য পরে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। এছাড়া অগ্নিদগ্ধ রবিউলকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি এবং বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

 

জামান জুট মিল করপোরেশনের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (প্রশাসন) মো. রিপন মোল্লা বলেন, আগুনে মিলের পাঁচটি মেশিনসহ ৪০ থেকে ৫০ লাখ টাকার পাট পুড়ে গেছে। যার আনুমানিক ক্ষতির পরিমাণ প্রায় আড়াই কোটি টাকা। এছাড়া তাদের চারজন শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। এদের মধ্যে আসলাম নামে একজন শ্রমিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

 

দিঘলিয়া ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ মাসুদ পারভেজ বলেন, প্রায় দেড়ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। তবে কি কারণে আগুন লেগেছে এবং কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা তদন্ত না করে প্রাথমিকভাবে বলা সম্ভব হচ্ছে না। দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসানউল্লাহ চৌধুরী বলেন, অগ্নিকাণ্ডে চারজন শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়েছে।

 

এদের মধ্যে আসলাম নামে গুরুতর অগ্নিদগ্ধ একজন শ্রমিককে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়া অগ্নিদগ্ধ রবিউলকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি এবং বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সংযুক্ত থাকুন