শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১
Logo
ঝিনাইদহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা : বাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট

ঝিনাইদহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা : বাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট

গ্রাম্য শলিসকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পাকা গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় ইমরান হোসেন (২৬) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনার জের ধরে ৪ টি বাড়ী ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।


এসময় পাকা গ্রামের আব্দুর রশিদের লুট হওয়া ৪ টি গরু আব্দুল মালেকের বাড়ী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি হাসপাতালে সে মারা যায়।


নিহত ইমরান হোসেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পাকা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের ইন্তার ছেলে আমিন হোসেন গত ১১ ফেব্রুয়ারি একই গ্রামের টিপুর ছেলে মুস্তাক হোসেন (১১) নামের একটি শিশুকে ফুসলিয়ে ফরিদপুরে নিয়ে যায়।


পরে ওই দিন রাতে পরিবারের লোকজন মুস্তাককে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে এ ঘটনা নিয়ে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি পাকা গ্রামে একটি শালিস বসে। সেসময় হাফিজ ও বাতেনের লোকজনের মধ্যে বাকবিতান্ডা শুরু হয়।


এক পর্ষায়ে উভয় গ্রুপের ইমরান হোসেন ও জীবনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে পরিবারের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।


ইমরানের অবস্থার অবনতি হলে ফরিদপুর ও পরে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন আবস্থায় সোমবার দুপুরে হাফিজ গ্রুপের সমর্থক ইমরান মারা যায়।


এ ঘটনায় একই গ্রামের আব্দুল বাতেন, শফিউদ্দীন, আব্দুর রশিদ ও কামরুজ্জানের বাড়ীঘর ভাংচুর করা হয়। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয় ও লুটকৃত গরু উদ্ধার করে গরুর মালিক আব্দুর রশিদের পরিবারের কাছে বুঝে দেওয়া হয়। বর্তমানে পরিস্তিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংযুক্ত থাকুন