শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১
Logo
চোখে অঞ্জনির ব্যথা যা করবেন

চোখে অঞ্জনির ব্যথা যা করবেন

সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখছেন চোখ ফুলে লাল হয়ে গেছে, পাতায় ফুসকুড়ির মতো কিছু একটা বের হয়েছে। প্রচ- ব্যথায় চোখ খুলতেই পারছেন না।

 

এ ছাড়া চোখ দিয়ে পানি পড়া, অনেক সময় পুঁজও হয়ে যায়। এটিকে অঞ্জনি বলা হয়। অনেকেই এই রোগে ভুগে থাকেন। আঞ্জনি কেন হয়? আমাদের চোখে অনেক ক্ষুদ্র তেল গ্রন্থি আছে। বিশেষ করে চোখের পাতার ওপর।

 

মৃত ত্বক, ময়লা বা তেল জমে ওই ছোট ছোট তেল গ্রন্থিগুলোকে বন্ধ করে দেয়। তেল গ্রন্থি বন্ধ হয়ে গেলে তার ভেতরে ব্যাকটেরিয়া জন্ম নেয়, আর তার ফলে অঞ্জনি হয়। এটি চোখের ভেতরে ও বাইরে হতে পারে।

 

যেসব লক্ষণে বুঝবেন চোখে অঞ্জনি- চোখ ফুলে যাওয়া, ব্যথা, চোখ থেকে অনবরত পানি পড়া, চোখের পলকের চারপাশে আলাদা ত্বকের মতো তৈরি হয়ে পুঁজ বের হওয়া, চুলকানি, সূর্যের আলোয় চোখ খুলতে সমস্যা ও চোখের পলক ফেলতে সমস্যা।

 

এসব লক্ষণ দেখা দিলে কখনই চোখের ওপর চাপ দেবেন না বা স্পর্শ করবেন না। এই রোগে ওষুধ খাওয়া বা চোখে ড্রপ দেয়ার প্রয়োজন নেই। কী করবেন-

 

১. যে চোখে আঞ্জনি হয়েছে, সেটায় গরম সেঁক দিলে আরাম পাবেন। গরমে পুঁজ বেরিয়ে অঞ্জনি ভালো হয়ে যাবে খুব তাড়াতাড়ি। একটি পরিষ্কার কাপড় নিয়ে সেটিকে গরম পানিতে ডুবিয়ে নিন। কাপড় থেকে পানি নিংড়ে নিয়ে চোখের ওপর ৫ থেকে ১০ মিনিট রাখুন। কোনোরকম চাপ দেবেন না। প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ বার এটা করতে হবে।

 

২. চোখে ক্ষারযুক্ত সাবান ব্যবহার করবেন না। টিয়ার ফ্রি বেবি শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন। হালকা গরম পানিতে শ্যাম্পু মিশিয়ে তুলোয় করে চোখের পাতা পরিষ্কার করুন। অঞ্জনি ভালো না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন এই কাজটি করুন।

 

৩. গরম সেঁকের বদলে গরম টি ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। ব্ল্যাক টি সব থেকে ভালো কাজ করে। কারণ এতে থাকে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান। একটা বড় কাপে গরম পানি নিয়ে টি ব্যাগটা দিয়ে দিন। এক মিনিটের মতো রেখে টি ব্যাগটা বের করে নিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে চোখের ওপর রাখুন। ৫ থেকে ১০ মিনিটের মতো রাখলেই হবে।

 

৪. চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ওষুধ ব্যবহার করবেন না।

সংযুক্ত থাকুন