বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১
Logo
এসএসসির ৭৫ ও জেএসসির ২৫ শতাংশ নিয়ে এইচএসসির ফল

এসএসসির ৭৫ ও জেএসসির ২৫ শতাংশ নিয়ে এইচএসসির ফল

আগামী বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা পেছাতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার পর তিন মাস সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পাঠদান শেষ করে এ দুই পাবলিক পরীক্ষা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।


বুধবার দুপুরে মাধ্যমিক পর্যায়ে ভর্তি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা বলতে আয়োজিত ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী জানান, এইচএসসির ফল নিয়ে বিশেষজ্ঞরা তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন।


এসএসসি ও জেএসসির রেজাল্ট নিয়েই এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। তবে এসএসসির ফল ৭৫ শতাংশ এবং জেএসসির ২৫ শতাংশ গুরুত্ব দিয়ে উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ করা হবে।


বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে মতামত দিয়েছেন। এর আলোকেই আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে এইচএসসির ফলাফল প্রকাশ করা হবে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, চলতি বছর এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল করে সব পরীক্ষার্থীকে পাস ঘোষণা করা হয়েছে।


এসএসসি-সমমান এবং জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলের মাধ্যমে গ্রেড নির্ধারণ করা হবে। এজন্য আমরা একটি টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করি। তারা বিভিন্ন বিষয় পর্যবেক্ষণ করে আমাদের কাছে একটি গ্রেড নির্ণয়ের জন্য একটি দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। এর আলোকে এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।


করোনাভাইরাসের প্রকোপ না কমলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে না। সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে বলেই মনে হচ্ছে। এ অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মানা কঠিন হয়ে যাবে। এজন্য করোনার মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে না বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী। তবে করোনার প্রকোপ কিছুটা কমলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে।


তবে এ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে বড় পরিবর্তন আসবে। আগের মতো প্রতিদিন ক্লাসে আসতে হবে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রেণি ক্লাসের পাঠদান পরিচালনা করতে হবে বলে জানান ডা. দীপু মনি। সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লটারির মাধ্যমে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।


এ বছর ক্যাচমেন্ট এরিয়া (বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা) ৪০ শতাংশের পরিবর্তে ৫০ শতাংশ করা হবে। ক্লাস্টারভিত্তিক ভর্তির ক্ষেত্রে লটারিতে পাঁচটি স্কুল নির্বাচন করতে পারবে।


করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে সকলস্তরে লটারির মাধ্যমে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে বিস্তারিত জানিয়ে দেয়া হবে।

সংযুক্ত থাকুন