মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১
Logo
অনাপত্তি পত্র নিয়ে দেশে ফিরলেন ৭০ যাত্রী

অনাপত্তি পত্র নিয়ে দেশে ফিরলেন ৭০ যাত্রী

ভারতের পেট্রাপোলে আটকা পড়া তিন শতাধিক যাত্রীর মধ্যে ৭০ বাংলাদেশি বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন। মঙ্গলবার তারা দেশে ফেরেন।


ইমিগ্রেশন ও স্বাস্থ্য বিভাগের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোলে একটি আবাসিক হোটেলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তারা তাদের নিজ খরচে সেখানে অবস্থান করবেন।


কোলকাতাস্থ বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশন অফিস থেকে এনওসি নিয়ে দেশে ফেরেন তারা। এদিকে, বাংলাদেশে অবস্থানরত ৫৮ জন ভারতীয় নাগরিককে ফেরত নিচ্ছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার ২৮ জন বাংলাদেশে অবস্থানরত ভারতীয় পাসপোর্ট যাত্রী ভারতে ফিরেছে।


বাংলাদেশ সরকার ১৪ দিনের জন্য ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের ঘোষণা দেয়ার আগে অনেক যাত্রী দেশে ফেরার জন্য রওনা হয়েছিলেন।


ভারত সীমান্তে অপেক্ষায় থাকা বাংলাদেশিরা জানান, অন্তত একদিন আগে বর্ডার বন্ধের ঘোষণা দেওয়া উচিত ছিল। তাহলে বর্ডারে এসে আমাদের এই ভোগান্তিতে পড়তে হতো না। ওপারে আটকে থাকা যাত্রীদের মধ্যে বেশির ভাগ রোগী এবং শিক্ষার্থী। গত দুই দিন ধরে আটকে থাকায় অনেক রোগী অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বলে জানা গেছে।


বেনাপোল সি এন্ড এফ এজেন্টের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব শামছুর রহমান বলেন, দেশের বৃহত্তম স্থল বন্দর হচ্ছে বেনাপোল। এই বন্দর হাজার হাজার মানুষের জীবন জীবকার একমাত্র উৎস কাজেই এই বন্দরে আমদানি রফতানি বাণিজ্য স্বাভাবিক রাখা অতন্ত্য গুরুত্বপূর্ন।


বেনাপোল রফতানি গেটে কাস্টমস ও বন্দরের যৌথ স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত কার্যক্রমের জন্য ব্যবসায়ীদের পক্ষে থেকে বেনাপোল কাস্টমস হাউস ও বন্দর কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই।


বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, ১৪ দিন ইমিগ্রেশন বন্ধের নির্দেশনাপত্র হাতে পেয়েছেন তিনি। সকাল থেকে যাত্রীদের পাসপোর্টের যে আনুষ্ঠানিকতা সেটি বন্ধ রাখা রয়েছে। হাইকমিশনার কর্তৃক বিশেষ অনুমতিপত্র নিয়ে আসা যাত্রীদের ছাড় দেয়া হচ্ছে।

সংযুক্ত থাকুন