অভয়নগরে যেন চোখে ধুলো দিয়ে চলছে সড়কে সংস্কার কাজ

0
229

অভয়নগর উপজেলার আলীপুর-সুন্দলী সড়কের আনুমানিক পাঁচ কিলোমিটার নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলেও সড়কের কয়েক অংশ দেবে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। দেবে যাওয়ার কারণে ঝুঁকিপূর্ণভাবে যানবাহন চলাচল করছে।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সড়কের দেবে যাওয়া অংশে সংস্কার কাজ শুরু করলেও কাজের মান নিয়ে অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর অভয়নগরের প্রকৌশলী মো. সানাউল হক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে সঠিক নিয়মে সংস্কার কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা যায়, ২০২১ সালে ৬ কোটি ১৯ লাখ ৮২২ টাকা ব্যয়ে উপজেলার আলীপুর থেকে সুন্দলী পর্যন্ত আনুমানিক পাঁচ কিলোমিটার সড়কের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে যশোরের ‘বিশ্বজিৎ কন্সট্রাকশন’ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার পর যানবাহন চলাচল শুরু হলে সড়কের কয়েক অংশ দেবে যায়। এরপর শুরু হয় যানবাহন চলাচলে বিড়ম্বনা। সরেজমিনে শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার আলীপুর-সুন্দলী সড়কে গিয়ে দেখা গেছে, নতুন সড়কের কয়েক স্থানে এক থেকে দেড় ফুট পরিমান দেবে গেছে।

দেবে যাওয়া অংশের দুইপাশে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়েছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দেবে যাওয়া অংশে বালু মিশ্রিত খোয়া ফেলে ভরাটের কাজ করছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘বিশ্বজিৎ কন্সট্রাকশন’র প্রতিনিধি বাবুল হোসেনের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, সড়কের দুই পাশে জলাবদ্ধতা। যে কারণে সড়ক দেবে গেছে। জরুরী ভিত্তিতে পায়েলিং করা প্রয়োজন। অন্যথায় সংস্কার করার পর আবারও দেবে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

তবে দেবে যাওয়া অংশে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। পিচের উপর বালু মিশ্রিত খোয়া ফেলে দেবে যাওয়া অংশ ভরাটের কাজ করা হচ্ছে। পরে ম্যাকাডাম করে পিচ দেওয়া হবে। পিচের উপর খোয়া ও বালু ফেলে ম্যাকাডাম করে সড়ক সংস্কার সঠিক হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্ন এড়িয়ে যান তিনি।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার পর পরই রাস্তার কয়েক অংশ দেবে যায়। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজ করার সময় সঠিক নিয়মে রাস্তার দুই পাশে মাটি ভরাট করেনি বিধায় এমনটি হয়েছে। সেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এবার দেবে যাওয়া অংশ সংস্কারের নামে দায়সারা কাজ শুরু করেছে। পিচ না তুলে পিচের উপর বালু ও খোয়া ফেলে ভরাট কাজ শুরু করেছে। সরকারি নিয়ম মেনে সংস্কার কাজ করার দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী মো. সানাউল হক জানান, আলীপুর-সুন্দলী সড়কের দেবে যাওয়া অংশ পরিদর্শন করা হয়েছে। শনিবার থেকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সংস্কার কাজ শুরু করেছে। সড়কের দেবে যাওয়া অংশের পিচ উঠিয়ে পূর্বের বালু ও খোয়ার সঙ্গে নতুন বালু ও খোয়ার মিশ্রণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ম্যাকাডাম শেষে পূনরায় পিচ দিতে বলা হয়েছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে দ্রুত সময়ের মধ্যে টেন্ডার মোতাবেক সংস্কার কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

Comment using Facebook