শার্শায় নৌকায় ভোট করায় যুবককে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ

0
72

বাগআঁচড়া (যশোর) সংবাদদাতা

শার্শায় সম্প্রতি শেষ হওয়া ইউপি নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট করায় অত্যাচার নির্যাতন ও প্রাণনাশের হুমকির মুখে মানবতার জীবন যাপন করছে শাহআলম নামের এক যুবক।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উলাশী ইউনিয়নের জিরেনগাছা গ্রামে। এ ঘটনায় নিরুপায় হয়ে শাহ আলম শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগে জানা গেছে, শার্শা উপজেলার জিরেনগাছা গ্রামের ইয়ার আলী খানের ছেলে শাহআলম বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উলাশী ইউনিয়নের তিন নাম্বার ওয়ার্ড জিরেনগাছা গ্রামের ইউপি সদস্য প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে প্রতিদন্দ্বিতা করে নৌকার পক্ষে কাজ করে।

এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নব নির্বাচিত ইউপি সদস্য আলাউদ্দীন সাথে তার বিরোধ সেই থেকে চলে আসছিলো। এরই জের হিসাবে একের পর এক আলাউদ্দীন বাহিনীর সক্রিয় সদস্য একই গ্রামের মৃত ইব্রাহিম মোড়লের ছেলে ইয়াকুব আলী, মৃত কেরামত আলীর ছেলে সিরাজুল ইসলাম, ও মৃত আবু জাফরের ছেলে নেদা সহ১০/১২ জনের একটি বাহিনী একের পর এক অত্যাচার নির্যাতন ও প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলেছে শাহ আলমকে।

সম্প্রতি গত ৩০শে জানুয়ারি সন্ধ্যায় শাহ আলম নাভারণ বাজারে ব্যক্তিগত কাজে এলে দূবৃত্তরা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। একপর্যায়ে তাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে দূবৃত্তরা চলে যায়। আলাউদ্দীন বাহিনী এলাকায় প্রভাব বিস্তার করতে নির্বাচনের দিনই শাহ আলমের বাসায় বোমা হামলা চালায়। এতে ভয় আতংকে শাহ আলম ও তার পরিবার প্রাণের ভয়ে চরম উদ্বগ্নের মধ্যে মানবেতার জীবন যাপন করছে। এদিকে শাহ আলম শার্শা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

আলাউদ্দীন বাহিনীর অত্যাচার নির্যাতন ও হুমকির হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রাশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছে। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আলাউদ্দীন বলেন, তারমত ছেলের সাথে আমি কি প্রতিদন্দ্বিতা করব। সে যাহা বলেছে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন আপনারা গ্রামে গেলে বিষয়টা বুঝতে পারবেন।

এবিষয়ে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম খানের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত পুর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comment using Facebook