নওয়াপাড়ায় ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে দায়সারা অভিযান!

0
29

স্টাফ রিপোর্টার

যশোরের অভয়নগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেট সংলগ্ন এলাকায় ব্যঙ্গের ছাতার মত গজিয়ে উঠা অধিকাংশ অনিবন্ধিত ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে দায়সারা অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করেন, অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ওয়াহিদুজ্জামান।

অনিবন্ধিত ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক বন্ধে সরকারী সময়সীমা শেষ হলেও অভয়নগরে বহাল তবিয়তে ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকের কার্যক্রম চলায় জনমনে নানা প্রশ্নের জন্ম দেয়। এরই প্রেক্ষিতে গত ৮ই জুন সোমবার দৈনিক নওয়াপাড়ায় ‘অভয়নগরের ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক চলছে আগের মতই স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা উদাসীন’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের পর নড়ে চড়ে বসে জেলা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। ফলে গতকাল নওয়াপাড়ার মোট ১৩টি ক্লিনিক ও ডায়গনস্টিকের ৮টিতে লোক দেখানো অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এরমধ্যে লাইফ কেয়ার, এবি ডায়াগনস্টিক, আঃ মুকিত বিশ্বাস ক্লিনিক, ল্যাভওয়েব ও পালস্ ডায়াগনস্টিক এ্যন্ড কনসালটেশন সেন্টারের কোন নিবন্ধন নাই বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। শুধুমাত্র অনলাইন আবেদনরে উপর ভিত্তি করে চলছে এদের কার্যক্রম। অপরদিকে ফয়সাল ডায়াগনস্টিক, পুপুলার ডায়াগনস্টিক ও নওয়াপাড়া ডায়াগনস্টিকের নিবন্ধন থাকলেও নবায়ন নেই। তাই নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত সকল প্রতিষ্ঠানকে ৭দিনের মধ্যে নবায়ন ও নিবন্ধনের জন্য সময় বেঁধে দিয়ে তড়িঘড়ি করে অভিযান শেষ করেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। একইদিন বিকালে বাকি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিকে অভিযানে যাওয়ার কথা থাকলেও আর কোন অভিযান পরিচালনা করা হয়নি।

এব্যাপারে ডা. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, শুধুমাত্র নিবন্ধন নেই এমন ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক বন্ধে আপাতত অভিযান পরিচালনা করছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, এমওডিসি ডা. রাকিবুল ইসলাম ও স্যানিটারি ইনস্পেক্টর আঃ ওহাব। এব্যাপারে যশোর জেলা সিভিল সার্জন ডা. বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস জানান, বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে বাকি প্রতিষ্ঠানে আগামী শনিবার অভিযান পরিচালনা করা হবে। তাছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের সাথে মতবিনিময় হয়েছে এবং তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছে কোন ধরনের অভিযোগ পেলে সাথে সাথে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, আমার কাছে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে হাসপাতাল গেটে কয়েকজন মেডিকেল অফিসারদের প্রতিষ্ঠান রয়েছে কিন্তু আমরা কাগজপত্র চেয়েছি তাতে দেখেছি কোন ডাক্তারদের মালিকানা নেই তাহলে আমরা কিভাবে এটার ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণ করব?

Comment using Facebook