কোটচাঁদপুরে ডাবল মার্ডার মামলার প্রধান আসামী সোহাগ ঢাকা থেকে গ্রেফতার

0
24

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে আলোচিত ডাবল মার্ডারের প্রধান অভিযুক্ত সোহাগ হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাজধানী ঢাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ। এমন তথ্য নিশ্চিত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) জগনাথ চন্দ্র জানান, সংঘর্ষে হত্যাকান্ডে জড়িত প্রধান আসামী সলেমানপুর এলাকার দাউদ হোসেনের ছেলে আহত সোহাগ হোসেন চিকিৎসাশেষে ঢাকায় আত্মগোপনে আছে।

এমন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে থানা পুলিশের একটি টিম রাজধানী ঢাকার উদ্দ্যেশে রওয়া হয়। সেখান অভিযান চালিয়ে সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার সোহাগকে গ্রেফতার করে প্রথমে নেওয়া হয়, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে। পরে সেখান থেকে খুলনা ২৫০ শয্য হাসপাতালের প্রিজম সেলে নেওয়া হয়। বর্তমানে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন আছে। হত্যাকান্ডে জড়িত বাকী আসামীদের গ্রেফতারেও অভিযান চলছে বলে জানায় পুলিশের এই কর্মকর্তা। গত ১৪ এপ্রিল বাংলা বর্ষবরণের দিন সকালে স্থানীয় কোটচাঁদপুরের চৌগাছা বাসস্ট্যান্ডে পৌরসভার বিভিন্ন যানবাহন থেকে টোল আদায়কে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে। উভয় পক্ষ প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে গুরতর আহত ৪ জনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আখ সেন্টার এলাকার জীবন হোসেন নামে এক যুবলীগ কর্মী মারা যায়। এছাড়াও উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর নেওয়ার পথে আক্তার হোসেন নামে আরো একজনের মৃত্যু হয়।

এঘটনার এক দিন পর শুক্রবার রাতে নিহত আক্তার হোসেনের পিতা বাবু তালেব বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় ৮ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ মামলার প্রধান অভিযুক্ত হলেন, সংঘর্ষে আহত সোহাগ হোসেন। সংঘর্ষের ঘটনায় সোহাগের পিতা দাউদ হোসেন বাদী হয়ে ৮/৯ জনের নামসহ অজ্ঞাত ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেছেন। ঘটনার দিন সলেমানপুর এলাকা থেকে খুনের সাথে জড়িত সন্দেহে ইমন হোসেন ডন ও আব্বাস আলী নামে দুই যুবককে আটক করে পুলিশ। পরে মামলার এজাহারভুক্ত আসামী হওয়ায় তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Comment using Facebook