পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে চাঁদা দাবীর অভিযোগ

0
37

বাগেরহাট সংবাদদাতা

বাগেরহাটে পুলিশ পরিচয় দিয়ে তুলে নিয়ে ৫০ হাজার টাকার চাদা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্ত ভোগীর প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে, বাগেরহাটের কচুয়ার চর টেংরাখালী গ্রামের ফজর মাঝির পুত্র সান্টু মাঝি (৩২) কে ৪ই এপ্রিল রাত সাড়ে ৮টায় পাশ্ববর্তী ছরোয়ার শেখ এর পুত্র রুবেল শেখ এর নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল বখাটে এসে এর মধ্যে অপরিচিত ২জনকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে বলেন সান্টুকে তোমাকে ওসি স্যার ডাকছে। ওদের কথায় সড়ল বিশ্বাসে আমি ওদের সাথে যেতে সম্মত্তি জানালে সান্টুকে মটর সাইকেলে করে থানায় না নিয়ে নিয়ে বাগমারা খেওয়া ঘাটে নিয়ে আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাদা দাবী করে। আমি টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে আমাকে অস্ত্রের ভয় দেখায় ও মারপিট শুরু করে।

এসময় আমার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আমাকে ওদের হাত থেকে উদ্বার করে। এব্যাপারে রুবেলসহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। তবে থানায় অভিযোগ দায়েরের পর এলাকার চিহ্নিত ডাকাত এমদাদ এর প্রধান সহযোগী রুবেল আমাকে হত্যার হুমকী দিচ্ছে। তাছাড়া একটি প্রভাবশালী মহল বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন মহলে দৌড়ঝাপ শুরু করেছে।

এবিষয়ে স্থানানীয় ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদ শিকদার বলেন, পলাতক এমদাদ ডাকাতের সেকেন ইন কমান্ড রুবেল এলাকার একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ তার ভয়ে সাধারন মানুষ মুখ খুলতে সাহস পায়না। অবিলম্বে তার বিরুদ্বে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানান।

এবিষয়ে জানতে চাইলে কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম বলেন, সান্টুর একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পুর্বক প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Comment using Facebook