শৈলকুপায় গাছ ও ফসল কেটে সাবাড়

0
90

বিশেষ প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সাড়ে ৩ বিঘা জমির গাছ ও ধরন্ত কলাগাছ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার বিকেলে উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত তাছের আলী বিশ্বাসের ক্রয়কৃত সাড়ে ৩ বিঘা জমি তার ওয়ারিশগণ ১৯৮১ সাল থেকে ভোগদখল করে আসছিল।

তাছের আলী বিশ্বাসের ওয়ারিশ মিলন হোসেন, শহিদুল ইসলাম, রেজাউল করিম, নাজমুল ফিরোজ, মতিয়ার রহমান বিশ্বাসসহ অন্যদের নামে ওই জমির নাম পত্তন ও রেকর্ড রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে ওই জমিতে তারা চাষাবাদও করে আসছিল।

কিন্তু হঠাৎ করেই শনিবার বিকেলে একই গ্রামের আবজাল মন্ডল, বাহাদুর ওরফে বলাই, আজমত মন্ডল, মতিন মন্ডলসহ তার লোকজন জমি নিজেদের দাবী করে গাছ কাটা শুরু করে। জোরপুর্বক তারা বড় বড় বেশ কয়েকটি মেহগনি, আম, ইপিলইপিল গাছ ও ৪০০ ধরন্ত কলাগাছ কেটে দেয়। এতে তাদের প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ক্ষতিগ্রস্থ শহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা যে জমি ভোগদখল করছি সেটা এই জমির মুল মালিক তাছের বিশ্বাস ১৯৮১ সালে ওই গ্রামের অমুল্য কুমার, নিত্যানন্দ বিশ্বাস, বিবেকানন্দ বিশ্বাসের কাছ থেকে ক্রয় করে। জমির বর্তমান রেকর্ড ও নামপত্তন আমাদের নামে আছে। কিন্তু তারা এই জমি তারা জোরপুর্বক দখল করে নিচ্ছে। আমরা এর বিচার চাই।

জাহাঙ্গীর হোসেন নামের এক প্রতিবেশী বলেন, জমি নিয়ে বিরোধ থাকতেই পারে। সকল কাগজপত্র যার থাকবে সেই জমি পাবে। জোর করে গাছ কেটে দেওয়া কোন মানুষের কাজ না।

এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ওসি (তদন্ত) মহসীন হোসেন বলেন, ঘটনাটি আমরা অবগত আছি। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থরা অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Comment using Facebook