বাগেরহাটের সৈয়দপুর গ্রামে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

0
32
Exif_JPEG_420

বাগেরহাট সংবাদদাতা

বাগেরহাট সদর উপজেলার রাখালগাছি ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের সিমা বেগম (২২) নামের একজন গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে মডেল থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে সৈয়দপুর গ্রামের নিহত সিমা বেগমের স্বামী মোঃ রিয়াজ খান এর নিজ বাড়ী হতে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্বামীর পরিবারের দাবী সে গলাই ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে, কিন্তু নিহতের পিতা পক্ষের দাবী তাঁকে যৌতুকের দাবীকৃত টানা না পেয়ে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এ নিয়ে জনমনে নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় লোকজন জানান, ফকিরহাটের নলধা-মৌভোগ ইউনিয়নের মৌভোগ পশ্চিমপাড়া গ্রামের আকবার শিকদার এর কন্যা সিমা বেগমের সাথে সৈয়দপুর গ্রামের মিজানুর রহমান খান এর পুত্র রিয়াজ খান এর সাথে পারিবারিক ভাবে প্রায় সাড়ে ৩বছর পূর্বে বিবাহ হয়।

বিবাহের পর কিছু দিন তাদের সংসার ভালভাবে চললেও কিছুদিন যেতে না যেতে স্বামী রিয়াজ খান এর আসল চেহারা ভেসে উঠে। স্বামী সময়ে-অসময়ে সিমা বেগমের পরিবারের কাছে যৌতুক দাবী করতো। এসময় কন্যার পিতা জামাতা রিয়াজকে কয়েক দফায় যৌতুক স্বরুপ বিপুল পরিমানে টাকা-পয়সা পদান করেন।

সর্বশেষ কন্যার পিতা আকবার শিকদার জামাতা রিয়াজ খান-কে প্রায় ২লক্ষ টাকা দিয়ে একটি ইজিবাইক ক্রয় করে দেন। এর পরও যৌতুকলোভী স্বামী রিয়াজ তার স্ত্রী সিমা বেগমকে যৌতুকের দাবীতে অমানষিক নির্যাতন চালায়। ঘটনা দিন দুপুরে লোকচক্ষুর অন্তরালে সিমা বেগম নিজ বাড়ীর ফাঁনের হুকের সাথে ওড়না পেচানো অবস্থা দেখতে পাওয়া যায় বলে স্বামী পক্ষের লোকজন আত্মহত্যা বলে প্রচার চালালেও বাপের বাড়ির লোকজন এটাকে পূর্বপরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে অভিযোগ করেছেন। এ নিয়ে এলাকাবসির মধ্যে নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে। সেকি আত্মহত্যা করেছে, নাকি তাকে হত্যার করা হয়েছে, তা নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত নিহতের লাশ তার স্বামীর বাড়ীতে রয়েছে।

এ ব্যাপারে বাগেরহাট সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে,এম আজিজুল হক নিহতের লাশ উদ্ধারের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন মেডিকেল রির্পোট না আসা পর্যন্ত হত্যা না আত্মহত্যা তা বলা যাবেনা।

Comment using Facebook