কেশবপুরে বাঁশের বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ: দু’পরিবার অবরুদ্ধ

0
34

আজিজুর রহমান, কেশবপুর

কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষরা চলাচলের পথ বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে রাখায় দুটি পরিবারের ৯ জন মানুষ ৩ দিন ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এঘটনায় মঙ্গলবার আলাউদ্দিন মোড়ল বাদি হয়ে প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুর পৌরসভার ভোগতী নরেন্দ্রপুর গ্রামের আলাউদ্দীন মোড়লের সাথে একই গ্রামের প্রতিবেশী মাসুম বিল্লাহ মোতাচ্ছিন বিল্লাহ মজনু মহিবুল্লাহ সরদার, মজিবুর রহমান ও মিজানুর রহমানের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে।

এ বিরোধ থেকে প্রতিকার পেতে আলাউদ্দীন মোড়ল বাদি হয়ে প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে যশোর আদালতে একটি দেওয়ানী মামলা করেন যার মামলার নং-৩৫/১৫। মামলাটি এখনো বিচারাধীন রয়েছে। এদিকে মামলা তুলে না নেওয়া গত সোমবার ৪ এপ্রিল সকালে প্রতিপক্ষরা বাঁশের লাঠি, সাবল, রড নিয়ে আলাউদ্দীন মোড়লের বাড়িতে ঢুকে তাদের গালিগালাজ করতে থাকে।

এইর প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষরা মারপিট করতে এগিয়ে গেলে তারা ভয়ে পরিবারের লোকজন নিয়ে ঘরের মধ্যে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এ সময় আলাউদ্দীন মোড়লের বসত বাড়ি থেকে বের হওয়ার চলাচলের পথ বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়ে তাদেরকে অবরুদ্ধ করে রাখে। বাঁশের বেড়া দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখায় দুটি পরিবারের ৯ জন মানুষ গত দু’দিন ধরে ওই পথ দিয়ে বের হতে পারছে না। যার ফলে স্কুল পড়ুয়া ছেলে মেয়েরাও বিদ্যালয়ে যেতে পারছে না।

এছাড়াও বাড়ির গরু-ছাগলও নিয়ে বিপাকে পড়েছেন দুটি পরিবার ।এব্যাপারে মোতাচ্ছিন বিল্লাহ ও মজনু বিল্লাহের কাছে জানতে চাইলে তারা সাংবাদিকদের জানান, বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দেওয়া চলাচলের ওই পথটি আমাদের। আমাদের জায়গা আমরা ঘিরে রেখেছি।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে যাতায়াতের ওই রাস্তাটি ইটের সলিং করানো হয়েছে। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সার্টিফিকেট সহকারী বিশ্বজিৎ দত্ত বলেন, অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Comment using Facebook