নওয়াপাড়াসহ কয়েকটি পোস্ট অফিসে পোস্টাল ওয়ার্ডার নেই!

0
31

আক্তারুজ্জামান

অভয়নগরের নওয়াপাড়াসহ কয়েকটি পোস্ট অফিসে পোস্টাল ওয়ার্ডার নেই। বিশ্বস্তসূত্রে জানা যায়, ২-৩দিন নওয়াপাড়াসহ কয়েকটি পোস্ট অফিসে পোস্টাল ওয়ার্ডারের অভাব। যেকারণে বিভিন্ন স্কুল-কলেজে নিয়োগ প্রার্থীরা পোস্টাল ওয়ার্ডারের অভাবে আবেদন করতে পারছেনা।

অভয়নগর উপজেলার ডহর মশিয়াহাটী গ্রামের টনি বিশ্বাস বলেন, মণিরামপুর উপজেলা বিএইচএমএস নিম্ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ৩টি পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে কয়েকদিন পূর্বে, সেখানে ৫শ’ টাকার পোস্টাল ওয়ার্ডার সহ আবেদন করতে হবে। আমি ওই বিদ্যালয়ে অফিস সহায়ক পদে আবেদন করবো কিন্তু রবিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত মশিয়াহাটী, নওয়াপাড়া, পায়রাহাট পোস্ট অফিসে পোস্টাল ওয়ার্ডার কিনতে যেয়ে, না পেয়ে বার বার ফিরে আসছি। তিনি আরও জানায়, মশিয়াহাটী, নওয়াপাড়া, পায়রাহাট পোস্ট অফিসে কর্মরত ব্যক্তিরা জানিয়েছে এ সপ্তাহে পোস্টাল ওয়ার্ডার পাওয়া যাবেনা। নিয়োগ আবেদনের শেষ তারিখ বৃহস্পতিবার, তাহলে কি পোস্টাল ওয়ার্ডারের অভাবে আমার চাকুরি হবেনা? সাধন বিশ^াস বলেন, মশিয়াহাটী পোস্ট অফিস থেকে রেভিউনিউ কিনতে হলে একদিন আগে টাকা দিয়ে পরের দিন রেভিউনিউ নিতে হয়। এব্যাপারে মশিয়াহাটী পোস্ট অফিসের পিওন বিমল কৃষ্ণ মন্ডল বলেন, আমার কাছে আজ টাকা দিলে আগামী কাল রেভিউনিউ এসে দেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন চাকুরিজীবি বলেন, মাঝে মাঝে নওয়াপাড়া পোস্ট অফিসে রেভিউনিউ পাওয়া যায়না।

এব্যাপারে নওয়াপাড়া পোস্ট অফিসের পোস্ট মাস্টার লিনটন কুমার সরকার বলেন, গতকাল আমাদের পোস্টাল ওয়ার্ডার শেষ হয়েছে। আমরা যশোর জেনারেল পোস্ট অফিসে চাহিদা দিয়েছি কয়েক দিনের মধ্যে পোস্টাল ওয়ার্ডার চলে আসবে।

তার কাছে যশোর বিভাগীয় পোস্ট মাস্টার জেনারেলের মোবাইল নম্বর চাইলে তিনি বলেন, উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নম্বর বা স্যারের মোবাইল নম্বর তার অনুমতি ছাড়া দিতে পারিনা। এব্যাপারে যশোর বিভাগীয় ডেপুটি পোস্ট মাস্টার জেনারেল মিরাজুল হক বলেন, পোস্টাল না থাকার তো কোন কথা নয়।

শেষ হওয়ার আগেই তো চাহিদা দেয়ার কথা। বিষয়টি আমি খোঁজ-খবর নিচ্ছি। নওয়াপাড়া পোস্ট অফিসের পোস্ট মাস্টার লিনটন কুমার সরকার আরও বলেন, আজকাল যুগের সাথে তাল মিলিয়ে পোস্ট অফিসের কার্যক্রমও অন-লাইনের মাধ্যমে হচ্ছে। অন-লাইনে (এফডি) ৩ বছর মেয়াদীতে ১১.২৮% লাভ ও সাধারণ হিসাবে ৭.৫০% লাভ পাওয়া যায়। পজ মেশিনের মাধ্যমে চিঠি অন-লইনে ইমপুট করা হয়। এরমাধ্যমে প্রাপক ও প্রেরক জানতে পারে তার চিঠি কোথায় কি অবস্থায় আছে। ডাক জীবন বীমা, পার্সেল বীমার সুবিধা আছে। এছাড়া খুব কম খরচে জিইপি করা যায়।

ছুটির দিন ব্যতিত ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তার গন্তব্য স্থলে পৌঁছে যায়। এছাড়াও পারিবারিক সঞ্চয়পত্র, পেনশনার সঞ্চয়পত্র, ৩মাস অন্তর সঞ্চয়পত্র, ৫বছর মেয়াদী বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্র সুবিধা আছে। একথায় অন লাইন সিস্টিমে পোস্ট অফিসের সকল কার্যক্রম চলে।

Comment using Facebook