বাঘারপাড়ায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রীকে অপহরণ!

0
41

যশোর অফিস

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায় সপ্তম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে যশোর আদালতে মামলা হয়েছে। অপহৃত কাজল লতা শর্মা বাঘারপাড়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ও দোহাকুলা মধ্যপাড়ার প্রশান্ত কুমার শর্মার মেয়ে। এ ঘটনায় সোমবার প্রশান্ত কুমার বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

আসামিরা হলেন গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি উপজেলার স্বপন বালার ছেলে শেখর বালা ও তার মা শিখা রানী বালা। এছাড়া মামলায় অজ্ঞাত আরও চারপাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক নিলুফার শিরীন অভিযোগ আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় বাদী উল্লেখ করেন, আসামি শেখর বালা বিবাহিত। বাদীর বাড়ির পাশে তার পরিবার নিয়ে ভাড়াবাড়িতে বসবাস করতেন শেখর।

বাদীর মেয়ে স্কুলে যাতায়াতের সময় শেখর বালা তাকে উত্যক্ত করতো। বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাবও দিতো। কাজল লতা শর্মা শেখরবালার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ২০২১ সালে কাজলকে অপহরণ করে নিয়ে যায় শেখর শর্মা। কৌশলে সেসময় পালিয়ে আসে কাজল।

বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে মীমাংসা হয়। কিন্তু কয়েক দিনের মাথায় ফের একই ধরণের আচরণ শুরু করে শেখর। সর্বশেষ গত ৫ মার্চ সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে শেখরবালা সহ অজ্ঞাত ৪/৫জন সন্ত্রাসীরা অস্ত্র সজ্জায় সজ্জিত হয়ে একটি মাইক্রোবাসে বাদীর বাড়িতে আসে। এরপর কাজলের গলায় দা ধরে মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যায়। এ

কপর্যায় বাদীসহ তার পরিবারের সদস্যরা আসামির গোপালগঞ্জের বাড়িতে যায়। শেখরের মাকে পেয়ে কাজলকে ফেরত চাইলে সে জানায়, কাজলকে শেখর আটকে রেখেছে। শেখরের সাথে বিয়ে দেয়া হবে। মেয়ে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে বাঘারপাড়া থানায় অভিযোগ দেয়া হয়। কিন্তু ভিকটিম উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে থানার নির্দেশনায় সোমবার আদালতে মামলা করেন প্রশান্ত।

Comment using Facebook