শিশুকে ধর্ষণ করতো স্বামী: সহযোগিতা করতো স্ত্রী

0
103

যশোর অফিস

যশোরের বাঘারপাড়ায় খাবারের লোভ দেখিয়ে নয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (২১ মার্চ) দিবাগত রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে বাঘারপাড়া থানায় এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর বাঘারপাড়া থানা পুলিশ মঙ্গলবার ভোরে অভিযুক্ত ভ্যানচালক আকাশ হোসেন (২৪) ও তার স্ত্রী সীমা খাতুনকে (২১) গ্রেফতার করেছে। গত শনিবার (১৯ মার্চ) রাত ৮টার দিকে উপজেলার দরাজহাট ইউনিয়নের পুকুরিয়া গ্রামের গুচ্ছপাড়ায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, দীর্ঘদিন ধরে তার ৯ বছরের শিশুকে খাবারের লোভ দেখিয়ে নিজ বসতঘরে ধর্ষণ করতো পুকুরিয়া গ্রামের সবুর মোল্যার ছেলে আকাশ হোসেন।

এ কাজে তাকে সহযোগিতা করতো তার স্ত্রী সীমা খাতুন। কিন্তু শনিবার (১৯ মার্চ) রাত আটটার দিকে শিশুটি তার প্রতিবেশী এক চাচীকে বিষয়টি জানায়। এরপর তিনি আশপাশের লোকজন ও শিশুটির পরিবারকে বিষয়টি জানালে তারা থানা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে গুচ্ছপাড়ার বাড়ি থেকে অভিযুক্ত ভ্যানচালক ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করে।

বাঘারপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মকবুল হোসেন বলেন, শিশুটিকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ধর্ষক পুকুরিয়া গ্রামের সবুর মোল্যার ছেলে আকাশ হোসেন ও ধর্ষণে সহায়তাকারী তার স্ত্রী সীমা খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা হয়েছে। এ ছাড়া ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ২২ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে।

Comment using Facebook