মণিরামপুরে কবিরাজের রুটিপড়া খেয়ে ৮ নারী-পুরুষ অসুস্থ্য

0
47

মণিরামপুর সংবাদদাতা

মণিরামপুরে কবিরাজের রুটিপড়া খেয়ে ৮ নারী-পুরুষ অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে। উপজেলার বাঙ্গালীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। জানা যায়, বুধবার সকালে বাঙ্গালীপুর গ্রামের শহিদুল মোল্যার মেয়ে রেশমা খাতুনের ঘর থেকে ৯২ হাজার টাকা চুরি হয়।

চুরির রহস্য উদ্ধার করতে রেশমা খাতুন সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জনৈক এক কবিরাজের কাছ থেকে ২২ খানা রুটি পড়া আনে। এরপর বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় শ্যামকূড় ইউনিয়নের মেম্বার রবিউল ইসলাম রবি, রফিকুল ইসলাম বুলুসহ স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তির উপস্থিতিতে এলাকার সন্দেহভাজন ২২জন নারী-পুরুষকে কবিরাজের পড়া ওই রুটি খাওয়ানো হয়। এরপর একে একে রুটি খাওয়া ব্যক্তিদের বিভিন্ন ধরনের শারিরীক সমস্যা দেখা দিতে থাকে। গত শুক্রবার ও শনিবার থেকে রুটি খাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে অনেকের ডায়রিয়া, পেটের পীড়া, মাথা যন্ত্রণা, বমি ও অচেতনসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয়। এতে ৮জন গুরুত্বরভাবে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। তারা হলেন-আলামিনের স্ত্রী লিমা খাতুন(১৯), জসিম উদ্দীনের স্ত্রী রেহেনা খাতুন(৩০), মোমিন উদ্দীনের স্ত্রী জাহিদা খাতুনন(৩৫), শরীফুলে স্ত্রী রাশিদা বেগম (৪৫), আনারুল ইসলামের ছেলে ফিরোজ হোসেন(৩০), ফিরোজের স্ত্রী ঝরনা বেগম(২৫), ফজলুর রহমানের ছেলে মাসুদ(৪৫) ও সরোয়ার মোল্যার ছেলে আতিয়ার রহমান (৫৫)। গুরুত্বর অসুস্থ্যরা বর্তমানে স্থানীয়ভাবে চিকিৎিসা নিচ্ছেন।

এ ঘটনায় ফিরোজ হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য রবিউল ইসলাম রবি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, রুটি খাওয়ানোর সময় আমাকে ডাকা হয়েছিলো।

এ রুটি খাওয়ার ফলে এখন অনেকেই মারাত্বক অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে। মণিরামপুর থানার এএসআই স্বরজিৎ বিশ্বাস অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Comment using Facebook