নড়াইলে কৃষক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম

0
36

নড়াইল সংবাদদাতা

নড়াইলের কালিয়ায় কৃষক দম্পতিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে চাঁচুড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌরুত মোল্যা ও তার সহযোগিরা।

স্থানীয়রা আশংকাজনক অবস্থায় কৃষক ও তার অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে আহতদের খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শনিবার (১৯ মার্চ) সকালে কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ী গ্রামে এই হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন চাঁচুড়ী গ্রামের প্রয়াত সিদ্দিক মোল্যার ছেলে জান্নাত মোল্যা (৪৫) ও তার স্ত্রী শীলা বেগম (৩৫)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বছর ২৮ নভেম্বর উপজেলার চাঁচুড়ী ইউপি নির্বাচনে তৌরুত মোল্যা বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ওই নির্বাচনে জান্নাত মোল্যা চেয়ারম্যান প্রার্থী তৌরুত মোল্যার প্রতিপক্ষ প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেন। সেই বিরোধের জের ধরে শনিবার সকাল ৭টার দিকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জান্নাত মোল্যার বাড়িতে দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে তৌরুত মোল্যা, রেজওয়ান মোল্যা, আসলাম মোল্যা, সেকেন মোল্যা,মুন্না মোল্যা ও আব্দুল্লাহ মোল্যাসহ একদল দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র নিয়ে জান্নাত মোল্যাকে ধাওয়া দেয়। এ সময় স্বামীকে রক্ষায় স্ত্রী শীলা বেগম এগিয়ে গেলে তাকে কোপানো শুরু করে। তখন জান্নাত মোল্যা স্ত্রীকে রক্ষায় এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা তাকেও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ ব্যাপারে তৌরুত মোল্যা বলেন,‘একটি তুচ্ছ ঘটনায় পারিবারিক বিরোধে সংঘর্ষ বাধলে তিনি সেখানে ঠেকাতে গিয়েছিলেন। কারো পক্ষ নেননি। যারা হামলা করেছে, তারা কেউ তার পক্ষের লোক না।

কালিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রতনুজ্জামান বলেন,‘ঘটনার পরপরই হামলাকারীরা পালিয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে হামলায় জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। থানায় মামলা হয়েছে।’

Comment using Facebook