কালিগঞ্জে চাঁদার দাবিতে মাছের ঘের জবরদখল

0
53

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা

কালিগঞ্জের পল্লীতে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে ৪০ বিঘার একটি মাছের ঘের দখল করে নিয়েছে সন্ত্রাসী বাহিনী। ঘেরের বাসাবাড়ি নিহ্নিত করে সেখানে লুটপাট চালিয়েছে তারা।

এঘটনায় থানায় মামলা হওয়ার পর এজাহারনামীয় এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মামলা সূত্রে ও ভুক্তভোগীর মারফত জানা গেছে, উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নের খাজরা গ্রামের মৃত কেশবলাল মন্ডলের ছেলে সন্তোষ কুমার মন্ডল (৫২) এর নিজস্ব ও লিজকৃত জমিতে পোদালী মৌজায় ২০১৯ সাল থেকে প্রায় ৪০ বিঘা জমিতে মাছের ঘের করে আসছেন। গত ৪ মার্চ আশাশুনির খাজরা গ্রামের মৃত কেশবলাল মন্ডলের ছেলে আশুতোষ মন্ডল (৫৪) ও তার ছেলে কিশোর মন্ডল (২৮) এর নেতৃত্বে এলাকার চিহিৃত বোমাবাজ সন্ত্রাসী বাহিনী বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মাছের ঘেরে যেয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করার উদ্যোগ নিলে ওই বাহিনী ৫ মার্চ ২০ বিঘা জমি বেড়ীবাঁধ দিয়ে জবরদখল করে ঘেরের কুনিতে সংরক্ষিত লক্ষাধিক টাকার মাছ লুটপাট করে নেয়।

এঘটনায় আশুতোষ মন্ডলকে প্রধান আসামি করে ৬ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ১৫/২০ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনার সত্যতা পেয়ে মামলা রেকর্ড করেন যার নম্বর-১৮/৭০, তারিখ: ১২/০৩/২০২২ খ্রি.। মামলা দায়েরের পর আসামিরা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৩ মার্চ গভীর রাতে ঘের পাহারাদারদের বেঁধে রেখে ঘেরের বাসা ভেঙ্গে নিহ্নিত করে এবং সন্তোষ মন্ডলের মালিকানাধীন ৪০ বিঘা ঘের জবরদখল করে নিয়েছে বলে জানা গেছে। সম্পূর্ণ ঘের জবরদখল করে নেয়ার ঘটনা থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

পরবর্তীতে মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার এজাহারনামীয় ৬ নম্বর আসামি উপজেলার চাঁদখালী গ্রামের মৃত সামছুর গাইনের ছেলে একাধিক মামলার আসামি চিহিৃত সন্ত্রাসী মোস্তফা গাইনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে।

এদিকে ঘের মালিক সন্তোষ কুমার মন্ডল জানান, ঘের জবরদখল ও লুটপাটের পরও সন্ত্রাসী বাহিনী তাকে ও পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশসহ বিভিন্ন ক্ষয়ক্ষতি করার অব্যাহত হুমকি দিচ্ছে। সে কারণে তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন দিনাতিপাত করছেন। এমতাবস্থায় তার মালিকানাধীন ঘের পুনরুদ্ধার ও আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন তিনি।

Comment using Facebook