নওয়াপাড়ায় বাসের ধাক্কায় আহত তাপস কুন্ডু আইসিইউতে

0
55

স্টাফ রিপোর্টার

শিল্প শহর নওয়াপাড়ায় বাসের ধাক্কায় তাপস কুন্ডু (৫০) নামে এক স্কুটি আরোহী গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনায় আটক বাস চালকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার দুপুরে আহত তাপস কুন্ডুর বড়ভাই পীযুষ কুন্ডু বাদি হয়ে বাস চালক নাঈম পারভেজের নামে অভয়নগর থানায় মামলা দায়ের করেন।

আহত তাপস কুন্ডু নওয়াপাড়া মহাশ্মশান কমিটির সভাপতি ও পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের গুয়াখোলা গ্রামের মৃত হরিপদ কুন্ডুর ছেলে।

অভয়নগর থানা সূত্র জানান, শনিবার দুপুরে পীযুষ কুন্ডু বাদি হয়ে বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ থানার তেলিগাতী গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে বাস চালক (রূপসা পরিবহন- ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-২৬৬২) নাইম পারভেজের (৫০) বিরুদ্ধে ২০১৮সালের সড়ক পরিবহন আইন, ৯৮/১০৫ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৮। এ ব্যাপারে মামলার বাদি পীযুষ কুন্ডু বলেন, ‘শুক্রবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যা আনুমানিক ৭ টার সময় নওয়াপাড়া মহাশ্মশানের সামনে যশোর-খুলনা মহাসড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

খুলনাগামী বেপরোয়াগতির রূপসা পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-২৬৬২) বাস আমার ভাইকে চাপা দিয়ে চয়ে যায়। উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে যশোর কুইন্স (প্রাঃ) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে মধ্যরাতে ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বর্তমানে আমার ভাই আইসিইউতে মৃত্যুর সঙ্গে যুদ্ধ করছে। বেপরোয়াভাবে যান চালানোর অপরাধে বাস চালকের বিরুদ্ধে মামলা করেছি।

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মন্ডল জানান, আটক বাস চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর তাকে যশোর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাস থানা হেফাজতে রয়েছে। প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যায় নওয়াপাড়া মহাশ্মশানের সামনে যশোর-খুলনা মহাসড়কে খুলনাগামী রুপসা পরিবহন একটি স্কুটিকে ধাক্কা মেরে আরোহীকে চাপা দিয়ে চলে যায়। পরে বাস যাত্রীদের সহযোগিতায় চালককে আটক করা হয়। বাসটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নিয়ে যায় পুলিশ।

Comment using Facebook