দুদিন পর বেনাপোল-পেট্রাপোলে আমদানি-রপ্তানি শুরু

0
39

যশোর অফিস

দুদিন পর বেনাপোল-পেট্রাপোলে আমদানি-রপ্তানি শুরু দুই দফা আলোচনার পর বেনাপোল বন্দর ব্যবহারকারী সংগঠনগুলো কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নেয়ায় দুই দিন বন্ধ থাকার পর বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ-ভারত আমদানি-রপ্তানি।

শুরু হয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ ও কাস্টমসের কার্যক্রমও। সোমবার (৭ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯টা থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। এর মধ্য দিয়ে দেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোলে ফিরে এসেছে কর্মচাঞ্চল্য। বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃক দুটি সিএন্ডএফ এজেন্টের লাইসেন্স বাতিল ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার (৫ মার্চ) সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানিসহ কাস্টমস ও বন্দরের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় বন্দর ব্যবহারকারী বিভিন্ন সংগঠন। এর ফলে বন্ধ হয়ে যায় ভারতের সাথে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যসহ বন্দরের পণ্য লোড, আনলোড।

এ নিয়ে রোববার দফায় দফায় বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশন, সিএন্ডএফ এজেন্টস স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের সাথে বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষের আলোচনা হয়। এর প্রেক্ষিতে রোববার রাতে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেয় আন্দোলনকারী সংগঠনগুলো। গত ২ মার্চ বুধবার ভারত থেকে বন্ড লাইসেন্সের (শুল্ক মুক্ত) মাধ্যমে আমদানি করা ডেনিম ফেব্রিক্স এর ট্রাকে করে আনা প্রায় অর্ধকোটি টাকার শাড়ি, থ্রিপিচ, বাংলা মদ, ফেনসিডিল, বিদেশি সিগারেট, ওষুধ, কারেন্ট জালসহ বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পণ্য আটক করে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। আমদানি প্রতিষ্ঠান ঢাকার অনন্ত ডেনিম টেকনোলজি লিমিটেড ও ফ্যাশান ফোরাম লিমিটেড।

এ ঘটনার সাথে ভারতীয় চালকদের সরাসরি সহযোগিতা থাকলেও ট্রাকসহ চালকদের ছেড়ে দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেন আন্দোলনকারীরা। এ ঘটনায় বেনাপোলের শিমুল ট্রেডিং এজেন্সি ও আইডিএস গ্রুপ নামে দুটি সিএন্ডএফ এজেন্টের লাইসেন্স সাময়িক বাতিল করে বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি সিএন্ডএফ দুটির কর্মচারীদের নামেও মামলা করা হয়। এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও দোষীদের আটক না করে সিএন্ডএফ এজেন্টের লাইসেন্স সাময়িক বাতিল ও কর্মচারীদের নামে করা হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) সকালে বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশন, ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতি যৌথ সভায় আমদানি-রপ্তানিসহ কাস্টমস ও বন্দরের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়। ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন রোববার (৬ মার্চ) সকালে বেনাপোল কাস্টমস হাউজ মিলনায়তনে কাস্টমস কমিশনার আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে রুদ্ধদ্বার বৈঠক অনুষ্টিত হয়।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লতা বলেন, তাদের সাথে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সলফ আলোচনা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ সমস্যাগুলো অনুধাবন করে আগামী এক সপ্তাহর মধ্যে সমাধান করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। সে কারণে সোমবার সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানিসহ বন্দর ও কাস্টমসের কার্যক্রম আগের মতো চলবে বলে জানান এমদাদুল হক লতা। বেনাপোল কাস্টম কমিশনার আজিজুর রহমান জানান, উভয় পক্ষের মধ্যে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। এর মাধ্যমে বন্দর ব্যবহারকারীরা কর্মবিরতি তুলে নিয়ে কাজে যোগ দিয়েছেন। দুই পক্ষ বসে সমস্যাগুলো সমাধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাজের গতি বাড়ানোর জন্য কাস্টমসের সকল কর্মকতা, কর্মচারীদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

Comment using Facebook