অভয়নগরে ডুবে যাওয়া জাহাজ উদ্ধারের কাজ শুরু

0
172

স্টাফ রিপোর্টার

অভয়নগরের ভৈরব নদে ১হাজার ৩শ’৫০ টন কয়লা নিয়ে ডুবে যাওয়া এমভি সুরাইয়া নামের কার্গো জাহাজ উদ্ধারের কাজ শুরু হয়েছে। সোমবার (৭ মার্চ) সকাল থেকে কয়লা আমদানিকারক আফিল ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল ও জাহাজ মালিকের উদ্যোগে উদ্ধারের কাজ শুরু হয়।

ডুবে যাওয়া জাহাজে দুই কোটি ৯৭ লাখ টাকার কয়লা ছিল বলে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান দাবি করেছে। জানা গেছে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়া পয়েন্ট থেকে ১৩৫০ টন কয়লা নিয়ে অভয়নগরের নওয়াপাড়া নদীবন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে এমভি সুরাইয়া নামের একটি কার্গোজাহাজ। শনিবার (৫মার্চ) দুপুরে উপজেলার ভাটপাড়া খেয়াঘাটসংলগ্ন ইকোপার্কের সামনে জাহাজটি ডুবে যায়।

জাহাজে দুই কোটি ৯৭ লাখ টাকার কয়লা ছিল। উদ্ধারকাজে নিয়োজিত ডুবুরী দলের প্রধান নাসির উদ্দিন জানান, ১২ সদস্যের একটি ডুবুরীদল জাহাজ উদ্ধারের কাজ নিয়োজিত রয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে জাহাজ থেকে ছোট ছোট মালামাল ও লংবুমের মাধ্যমে কয়লা উদ্ধার করা হচ্ছে। এরপর জাহাজে আটকে যাওয়া পলি ও আবর্জনা অপসারণ করা হবে। এ কাজ শেষ হতে ১০-১২ দিন লাগতে পারে।

তবে কবে নাগাদ জাহাজটি উদ্ধার হবে তা এ মূহুর্তে বলা সম্ভব নয়। আমদানিকারক আফিল ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের পরিচালক রাকিবুল ইসলাম বলেন, ইতোমধ্যে বিআইডব্লিউটিএর লংবুমের সাহায্যে ৩০০ টন কয়লা উদ্ধার করা হয়েছে। ডুবুরীদল কাজ করছে। আজ সোমবার অভয়নগর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হবে।

এ ব্যাপারে নওয়াপাড়া নদীবন্দরের উপ-পরিচালক মাসুদ পারভেজ বলেন, ‘আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ডুবে যাওয়া এমভি সুরাইয়া নামের জাহাজটি উদ্ধার করতে না পারলে জাহাজ মালিকের বিরুদ্ধে বিধিমোতাবেক ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।’ প্রসঙ্গত, গত ৫ মার্চ ১৩৫০ টন কয়লা নিয়ে অভয়নগরের ভাটপাড়া খেয়াঘাট সংলগ্ন ইকোপার্কের সামনে এমভি সুরাইয়া নামের জাহাজ ডুবে যায়।

এছাড়া গত ৩ ফেব্রুয়ারি নওয়াপাড়া নদীবন্দর এলাকায় পীরবাড়ী ঘাটে এমভি শারিব বাঁধন নামের একটি জাহাজ ৬৮০ টন (১৩ হাজার ৬০০ বস্তা) সরকারি ইউরিয়া সার নিয়ে ডুবে যায়। নদীর নাব্যতা কমে যাওয়ার কারণে ভৈরব নদে জাহাজডুবির ঘটনা ঘটছে বলে দাবি করেছেন ভৈরব নদী রক্ষা কমিটি।

Comment using Facebook