যশোর শিশু হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি

0
33

যশোর অফিস

যশোর শিশু হাসপাতাল থেকে এক নবজাতক চুরি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার বেলা ১২টার দিকে। নবজাতকের নাম আব্দুর রহিম।

শিশুর মা ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মেহেদী হাসানের স্ত্রী আসমা খাতুন জানান, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি কালীগঞ্জের কুইন্স হাসপাতালে অপারেশনের মাধ্যমে শিশুটির জন্ম হয়। এর পর শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় ওই দিনই তাকে যশোর শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোববার দুপুরে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে যাওয়ার আগ মুহুর্তে নানি তাসলিমার কোলে বাঁচ্চাটি দিয়ে বাথরুমে যান। এসে শোনেন বাচ্চা চুরি হয়ে গেছে।

শিশুর নানী তাসলিমা জানান, এক মহিলা তাদের রুমে এসে ভালোমন্দ জিজ্ঞাসা করেন। পরে বাচ্চাটি কোলে নেন। এসময় তিনি হাসপাতালের বিছানা গোছাচ্ছিলেন। এরমধ্যে বাচ্চাটা নিয়ে চলে যান ওই নারী। পরে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডাক্তার সৈয়দ নুর ই হামিম জানান, তিনতলার ৩০৭ নম্বর ওয়ার্ডের এক্সটা-১ নম্বর বেডে ছিলো ওই শিশু। রোববার তাদের ছাড়পত্র দেয়া হয়। হঠাৎ তিনি জানতে পারেন বাচ্চাটি চুরি হয়েছে। পরে তিনি পুলিশকে খবর দেন। সিসি ফুটেজ দেখে বিষয়টি নিশ্চত হওয়া গেছে।

সিসি ফুটেজে দেখা যায়, পিত্তি রঙের বোরকা পরা ও লাল রংঙের ওড়না ও মুখে মাস্ক পরা এক নারী ঠিক বেলা ১২টা ১২ মিনিটে হাসপাতালের তিনতলা থেকে বাচ্চাটি কোলে নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছেন।ঘটনার খবর শুনে পুলিশসহ আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক টিম ঘটনাস্থলে হাজির হয়।

সিসি ফুটেজ দেখে বাচ্চাটি উদ্ধারে অভিযান নামেন তারা। এদিকে, ঘটনার পরই হাসপাতালে অন্য রোগী ও তাদের স্বজনদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রধান ফটক আটকে প্রত্যেককে তল্লাশি ও সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। এ বিষয়ে উপশহর ফাঁড়ি ইনচার্জ মোহাম্মদ এজাজ বলেন, তারা ইতিমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে অভিযানে নেমেছেন।

Comment using Facebook