সাকিবকে নিয়ে কেন এতো লুকোচুরি?

0
92

ক্রীড়া ডেস্ক

পূর্বঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বিপিএলের ফাইনাল উপলক্ষে ট্রফি নিয়ে দুই দলের অধিনায়কের ফটোশুটের কথা ছিল। কিন্তু উপস্থিত সাংবাদিকরা দেখতে পান, ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আসেননি!

তার বদলে ফটোশুট করেন নুরুল হাসান সোহান। সাকিবের না আসার কারণ নিয়ে শুরু হয় লুকোচুরি। একেক পক্ষ একেক ধরনের বক্তব্য দিতে থাকে।

অবশেষে আসল তথ্য ঠিকই বেরিয়ে আসে, দলের ফটোশুট বাদ দিয়ে একটি বিজ্ঞাপনী শুটিংয়ে গিয়েছিলেন সাকিব! তার এই অনুপস্থিতি নিয়ে ফরচুন বরিশাল থেকে জানানো হয়, সাকিব নাকি পেটের পীড়ার কারণে আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনে আসতে পারেননি। কিন্তু সংবাদ সম্মেলনে তৈরি হয় ধোঁয়াশার।

দলটির সহ-অধিনায়ক নুরুল হাসান আমতা আমতা করে বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার আমাদের ঐচ্ছিক অনুশীলন ছিল, করেছি। আমার কাছে যেটা মনে হয়, উনি জিম বা অন্য কিছু করছেন। যে কারণে হয়তো আসতে পারেননি। এ জন্যই আমার এখানে আসা। আমার কাছে মনে হয়, বিষয়টি ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত। এর থেকে খুব বেশি আমি জানি না। ‘ এর ঘণ্টাখানেক পর বরিশাল কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন আরেক কথা, ‘আসলে তেমন কিছু না। কাল অনুশীলন করেছে।

আজও জিম করেছে। আমি আসলে অনুশীলনে আসার জন্য সেভাবে বলিনি। সে তার খেলাটা জানে। পুরো বিপিএল যদি দেখেন, সাকিব ব্যাট করেছে তিন থেকে চার দিন। নিজের মতো করে কাজ করেছে। আজ বলল ভালো লাগছে না, যাব না। আমি বলেছি ঠিক আছে। ‘ একেকজনের একেক কথা শুনে সাংবাদিকদের সন্দেহ হয়। একপর্যায়ে ঠিকই জানা যায়, সাকিব বিজ্ঞাপনী শুটিংয়ে গেছেন! সাকিব হয়তো দলের অনুমতি নিয়ে শুটিংয়ে যেতেই পারেন, কিন্তু করোনা প্রটোকল বলেও তো একটা কথা আছে। ফাইনালের আগে সেটাই বা তিনি ভাঙলেন কেন?

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ক্রিকেটারদের মানসিক স্বাস্থ্যের কথা ভেবে এবারের বিপিএলে জৈব সুরক্ষাবলয় রাখেনি বিসিবি। জরুরি প্রয়োজনে যদি কোনো ক্রিকেটার বা সাপোর্ট স্টাফ টিম হোটেল ছাড়েন, তাকে করোনা নেগেটিভ হয়ে দলের সঙ্গে যোগ দিতে হবে। সর্বশেষ পাওয়া খবরে জানা গেছে, সাকিব করোনা নেগেটিভ হয়েছেন।

Comment using Facebook