কচুয়ায় পাচারকালে ২০ বস্তা ইউরিয়া সারসহ আটক ১

0
120

কচুয়া (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

কচুয়া উপজেলার বাধাল বাজার থেকে পাচার হওয়া ২০বস্তা ইউরিয়া সার ও নসিমোন সহ চালক মিরাজ হাওলাদার(৪০)কে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ১১টার সময় বাগেরহাট সদরের মাদ্রাসা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক মিরাজ হাওলাদার কচুয়া উপজেলার প্রতাপপুর গ্রামের জলিল উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে।

বাগেরহাট মডেল থানার এ এস আই মোঃ আশরাফুল আলম বলেন, কচুয়া উপজেলার বাধাল বাজার থেকে পাচার হওয়া নছিমোন সহ ২০ বস্তা ইউরিয়া সার ও নছিমোন চালক মিরাজ হাওলাদাকে বাগেরহাট সদরের বেমরতা ইউনিয়নের মাদ্রাসা বাজার থেকে আটক করা হয়।

সারের কোন মেমো দেখাতে নাপারায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে। আটক মিরাজ জানায়, তাকে বাধাল বাজার থেকে ভাড়া চুক্তিতে সার ব্যবসায়ী সুমন ২০ বস্তা ইউরিয়া সার দিয়ে মাদ্রাসা বাজারে পাঠিয়েছে। ইতিপূর্বে গোপালপুর, বাধাল ইউনিয়ন সারের ডিলার এর ম্যানেজার ও খুচরা বিক্রেতা আঃ ছালাম (সুমন) মংলা থেকে অবৈধ পথে গোপালপুর বিষখালী এলাকায় এক কার্গো খোলা ডিএপি সার এনে প্যাকেট (বস্তা বন্ধি) করার সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা সহ ৯৫ বস্তা ও ২৬শত কেজি খোলা সার জব্দকরে। সার ডিলার আঃ ছালাম সুমন বলেন, আমি প্রতিষ্ঠানে না থাকায় আমার কর্মচারী দিতেও পারে বা অন্য কোথাও থেকে নিতে পারে।

কচুয়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কৃষিবিদ মোঃ ইসমাইল হোসেন বলেন, ইউনিয়ন ডিলার তার নিদ্দিষ্ট এলাকার বাহিরে সার বিক্রয়ের কোন সুযোগ নেই। যদি কোন ডিলার এধরনের কাজ করে তাহলে তার বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক প্রয়োনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Comment using Facebook