বাগেরহাটে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রীর মৃত্যু

0
52

বাগেরহাট সংবাদদাতা

বাগেরহাটে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর মারধরে আহত রীনা বেগম (৩৮) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়ি রীনা।এর আগে সোবমার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় যৌতুকের দাবিতে স্বামী জিয়ারুল শেখ (৪৩) বেধরক মারপিট করেন রীনা বেগমকে। ওইদিন রাত একটায় মূমুর্ষ অবস্থায় রিনা বেগমকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন জিয়ারুল। বুধবার দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে নিহতের মরদেহেরে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

এ ঘটনায় মারধরকারী স্বামীকে আটক করেছে বাগেরহাট সদর থানা পুলিশ। নিহত রীনা বেগম কচুয়া উপজেলার বিলকুল গ্রামের মৃত সুলতান পাইকের মেয়ে। বছর তিনেক আগে বাগেরহাট সদর উপজেলার চিতলী গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের ছেলের জিয়ারুল সেখের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই নানা কারণে রিনার উপর অত্যাচার করত সে।

নিহতের চাচা বারেক পাইক বলেন, যৌতুকের দাবীতে প্রায়শই রীনাকে মারপিট ও নির্যাতন করত জিয়ারুল। অত্যাচার সহ্য না করতে পেরে, কয়েক মাস আগে রীনার পৈত্রিক সম্পত্তি বিক্রি করে আড়াই লাখ টাকাও প্রদান করা হয় জিয়ারুলকে। এতেও শান্ত হয়নি জিয়ারুল আবারও টাকার জন্য অত্যাচার শুরু করে রিনাকে।এক পর্যায়ে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় রীনাকে বেধরক মারপিট করে। পরে গভীর রাতে অচেতন অবস্থায় রিনাকে বাগেরহাট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা নেওয়ার পথে আমার ভাইজি মারাযায়। আমরা এই হত্যার বিচার চাই।

বাগেরহাট সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে.এম আজিজুল ইসলাম বলেন, রীনা বেগমকে হত্যার অভিযোগে খুলনা থেকে অভিযুক্ত স্বামী জিয়ারুলকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Comment using Facebook