যশোরসহ ৯ জেলার দেড় কোটির বেশি কৃষক পাবেন ‘স্মার্ট কৃষি কার্ড’

0
78

রুহুল আমিন, যশোর

প্রকৃত কৃষককে প্রণোদনা দেয়া ও কৃষক মাঠে কী ধরনের ফসল ফলায় তা মনিটরিং করতে যশোরসহ ৯ জেলার দেড় কোটির বেশি কৃষককে স্মার্ট কার্ডের আওতায় আনার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। গত মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

স্মার্ট কৃষি কার্ড ও ডিজিটাল কৃষি (পাইলট) শিরোনামের প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হবে ১০৭ কোটি টাকা। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর কৃষকদের জন্য এই কার্ড তৈরি করবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়সহ ১৪টি কৃষি অঞ্চলের ৯টি জেলা যশোর, গোপালগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, টাঙ্গাইল, বরিশাল, দিনাজপুর, রাজশাহী, বান্দরবান ও ময়মনসিংহের সব উপজেলা এবং মেট্রোপলিটন এলাকার কৃষকদের এ কার্ড দেয়া হবে।

পরবর্তী সময় অন্য অঞ্চলের কৃষকদের এ সেবার আওতায় আনা হবে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে কৃষকরা কাগুজে কার্ড ব্যবহার করছেন। তবে এতে করে অনেকেই ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেন।

কৃষকদের ভোগান্তি লাঘব করতে এবং প্রণোদনা প্রক্রিয়া সহজ করতে প্রথম পর্যায়ে ১ কোটি ৬২ লাখ কৃষকের ডিজিটাল প্রোফাইল তৈরি করা হবে। দ্বিতীয় ধাপে বাকি কৃষকদের কার্ড দেয়ার পাশাপাশি তাদের প্রোফাইল তৈরি করা হবে।

২০২৪ সাল নাগাদ প্রকল্পের কাজ শেষ করবে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর। প্রকল্পটির প্রধান উদ্দেশ্য সম্পর্কে বলা হয়েছে, কৃষকদের ডিজিটাল পরিচিতি নিশ্চিতকরণ, এলাকা ও চাহিদাভিত্তিক কৃষিসেবা প্রদান এবং ডিজিটাল বিশ্লেষণ ও ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় কৃষিতথ্য নিশ্চিত করা হবে স্মার্ট কার্ডের মাধ্যমে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মতে, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ডিজিটাল কৃষি প্রোফাইল তৈরি, স্মার্ট কৃষি কার্ড বিতরণ, ডিজিটাল কৃষিতথ্য বিশ্লেষণ ও তথ্যের সঠিক ব্যবস্থাপনা সহজ হবে। এর মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যের সাহায্যে কৃষকের কৃষি উৎপাদনের সিদ্ধান্ত ও পরিকল্পনা গ্রহণ সহজ হবে।

Comment using Facebook