ব্লাক বেবি তরমুজ চাষে সফল কালীগঞ্জের মিজানুর

0
45


কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা
ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার চাঁদবা গ্রামের মৃত তবিবুর রহমাানের ছেলে খন্দকার মিজানুর এ বছর ৪০ শতক জমিতে ব্লাক বেবি জাতের তরমুজ চাষ করেছেন। ৪০ শতক জমিতে ছোট বড় মিলে প্রায় ২৫ হাজার পিচ তরমুজ বিক্রি করেছেন। এতে প্রায় দুই লাখ টাকা বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন মিজানুর রহমান। এ তরমুজ চাষ করতে তার প্রায় ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। চলতি বছরের জুলাই মাসের ২৫ তারিখ তার জমিতে তরমুজের বীজ রোপন করেন। মাত্র দুই মাসে ফল সংগ্রহের উপযোগী হয়েছে। স্থানীয় ও ঢাকার ব্যাপারীরা ক্ষেতে এসে তরমুজ নিয়ে যাচ্ছে। তরমুজ বিক্রি শেষ হলে খরচ বাদে লক্ষাধিক টাকা লাভ করতে পারবে বলে আশা করছেন। মাত্র দুই মাসে ভিন্ন জাতের এ তরমুজ চাষ দেখে অন্য কৃষকরাও উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। এর আগে জেলার বিভিন্ন এলাকায় গোল্ডেন ক্রাউন (হলুদ রঙের) জাতের তরমুজ চাষ হতে দেখা গেছে। তরমুজের পাশাপাশি তার বাকি প্রায় ১৮ বিঘা জমিতে রয়েছে মাল্টা, কমলা লেবু, ড্রাগন, কুল, ফিলিপাইন জাতের আখ, আম, ক্যাপসিকাম, ব্রকলির সহ নাানা জাতের মৌসুমি সবজি। খন্দকার মিজানুর রহমান এর ব্যাপারে জানাজায়,তিনি পেশায় ছিলেন একজন ব্যাংকার। কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার শিকদার মো. মোহায়মেন আক্তার জানান, এ মৌসুমে তরমুজের চাষ হয় না বললেই চলে। তবে শিক্ষিত যুবক মিজানুর রহমান বিদেশী জাতের তরমুজ চাষ করে সফলতা পেয়েছে, যা অন্য কৃষকদের জন্য অনুকরণীয়। এ জাতের তরমুজ পানি নিষ্কাষণ ও বেলে দো-আঁশ মাটি চাষের জন্য বেশ উপযোগী।

Comment using Facebook