কালীগঞ্জে স্কুল শিক্ষককে উত্তম-মাধ্যম দিলো স্থানীয়রা : অনৈতিক কাজের ভিডিও ফাঁস

0
54


বেলাল হুসাইন বিজয়, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম এক নারীর সাথে অনৈতিক কাজ করতে গিয়ে ধরা খেয়েছেন। এসময় স্থানীয়রা ধরে ওই শিক্ষককে মারধর করেন। গতবৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে যশোরে এ ঘটনা ঘটে। স্কুল শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম রঘুনাথপুর রোস্তম আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আমির হোসেনের ছেলে। জানা গেছে, সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় মেয়েদের উত্ত্যক্ত করে। সম্প্রতি সে যশোরের একটি মেয়েরে সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। সেই মেয়েকে নিজেকে অবিবাহিত বলে ম্যাসেঞ্জারে লেখেন শিক্ষক অসিম। এরপর তিনি গত বৃহস্পতিবার দুপুরে দেখা করতে যান। দেখা করতে গিয়ে স্থানীয়দের কাছে ধরা খেয়ে যান শিক্ষক অসিম। স্থানীয়দের জেরার মুখে তিনি উল্টা-পাল্টা কথা বলতে থাকেন। এরপর তাকে চড় থাপ্পড় ও উত্তম মাধ্যম দেন স্থানীয়রা। এ সময় তার শরীরে থাকা জামা-কাপড় ছিড়ে যায়। তবে স্কুল শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম হাসতে হাসতে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করেন। শিক্ষক অসিমের অডিও ভিডিও এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল। সম্প্রতি ওই স্কুল শিক্ষক কালীগঞ্জ শহরের দশতলা ভবনের পিছনে এক মহিলার বাড়িতে যান। এসময়ও তাকে স্থানীয়রা হাতে নাতে ধরে ফেলে। কিন্তু সবাইকে ম্যানেজ করে ফেলে ওই স্কুল শিক্ষক। শিক্ষক অসিমের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ করে একাধিক নারী জানান, তাদের মেসেঞ্জারে অসিম প্রায়ই মেসেজ দিয়ে বিরক্ত করতেন। স্থানীয়রা শিক্ষক অসিমের বরখাস্তসহ বিচারের দাবি জানান। সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন তোতা জানান, এটি সাংঘাতিক অপরাধ। যদি এমন কাজ ওই শিক্ষক করে থাকেন তাহলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে শিক্ষকের এমন অনৈতিক কাজে জড়িত থাকায় শহরজুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। অবিলম্বে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল।

Comment using Facebook