আজ বৃহস্পতিবার ২৮শে মে, ২০২০ ইং রাত ৩:১৮

add

স্বপ্ন পিটিয়ে হত্যা : মা-বাবার আর্তনাদের সান্তনা দেবে কে?

হারুন-অর-রশীদ
প্রকাশিত: অক্টোবর ৮, ২০১৯ সময় : ০০:১৪:০৬

দেশের সেরা বিদ্যাপিঠ, যেখানে দেশের প্রথম সারির মেধাবী সন্তানরা শিক্ষা লাভ করে বড় বড় প্রকৌশলী হয়ে দেশের উন্নয়নে ভুমিকা রেখে চলেছে সেই মহান বিদ্যাপিঠে শ্বাপদের আনাগোনা। যেখানে স্বপ্ন রচিত হয় সেখানে আজ স্বপ্নকে পিটিয়ে থেঁতলে হত্যা করে পৈশাচিক আনন্দ লাভ করা হয়। একটা জাতির কাছে, একটা সমাজের কাছে, একটি রাষ্ট্রের কাছে একটি সভ্য সমাজের মানুষের কাছে এর চেয়ে লজ্জার ঘৃণার আর কি হতে পারে? খুলনা বিভাগের কুষ্টিয়া জেলার মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ। এলাকায় শান্ত-শিষ্ঠ-ভদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থী হিসেবে যার প্রশংসা সকলের মুখে। ছোট বেলা থেকে ছেলের তুখোড় মেধায় উচ্ছ্বাসিত মা বাবা দিনের পর দিন বুনতে থাকেন আগামীর স্বপ্ন। দিনের পর দিন মাসের পর মাস, বছরের পর বছর অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেন স্বপ্ন পূরণের। ছেলেকে উচ্চতর ডিগ্রিী অর্জন করিয়ে সফল মানুষের কাতারে দাড় করিয়ে হবেন গর্বিত মা-বাবা। একটা শিশুকে দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পর্যন্ত পাঠাতে একজন মা-বাবার প্রতিদিনকার স্বপ্ন, সাধনা, ত্যাগ, শ্রম লিখে প্রকাশ করা একেবারেই অসম্ভব।

সেই স্বপ্নের বীজ বুনে কলিজ্বার টুকরা আবরার ফাহাদকে বুয়েটে বড় প্রকৌশলী হওয়ার স্বপ্ন পূরণের জন্য পাঠিয়েছিলেন কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গার বরকত উল্লাহও ছালেহা খাতুন। কে জানতো এই স্বপ্নই একদিন চিরদিনের হাহাকার হয়ে বেজে উঠবে মায়ের কলিজ্বায়। পিতার বুকে একদিন এই স্বপ্নই পাথর হয়ে আমৃত্যু চেপে থাকবে। এক ভয়ানক শূন্যতা খেতে দেবেনা, ঘুমাতে দেবেনা, চলতে দেবেনা। কেবল সন্তান হারানোর এক নিরব ব্যাথায় নিজেদের মৃত্যু কামনায় কাটিয়ে দিতে হবে বাকি জীবন। কিন্তু কেন? কেন এই স্বপ্ন হত্যা? কেন পৈশাচিক নির্মমতায় পিটিয়ে থেতলে মা-বাবার লালিত স্বপ্নকে কবরে পাঠানো? নোংরা আর স্বার্থপর রাজনীতির বলি কেন হতে হবে আবরারদের? একটি জীবন কি এতই সহজ যে সামান্য ফেসবুকের পোষ্ট এর জন্য শেষ হয়ে যাবে? অভিযোগ উঠেছে, ক্ষমতাসীন দলের অঙ্গ সংগঠন ছাত্রলীগের কতিপয় নেতা-কর্মী বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে শিবির সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করেছে। কিন্তু কেন? কেউ অপরাধ করলে তার জন্য পুলিশ আছে, প্রশাসন আছে, আইন আছে আদালত আছে।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে আইন নিজের হাতে তুলে নেয়ার অধিকার কারও নেই। তবে কেন এরা এতটা ঔধত্য দেখানোর সাহস পেলো? যখন রাষ্ট্র জুড়ে চলছে শুদ্ধি অভিযান, জাতির পিতার কন্যা, উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্ঠা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের দলের ভিতর থেকেই হোমরা চোমরাদের ধরে আইনের কাঠগড়ায় দাড় করানোর ঘোষনা দিয়েছেন। সে নির্দেশের বাস্তব প্রতিফলনও ঘটতে শুরু করেছে, সেখানে এরা এতোটা দুঃসাহস কোথা থেকে পেলো সচেতন মহলের এ প্রশ্ন নিশ্চয়ই অবান্তর নয়। আবরার ফাহাদের মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়েছে স্বজনরা। মা ছালেহা খাতুন মানতেই পারছেন না তাঁর ছেলে আর নেই। ছেলের কথা মনে করে বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন তিনি। আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ শোকে পাথর হয়েছিলেন। বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তাঁর ভাই আর নেই। আবরারের পিতা পাথরের মতো নিশ্চল হয়ে আছে। জানি এই হত্যাকা-ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বোচ্চ শাস্তির নির্দেশ দিবেন। যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। দল থেকে বহিঃস্কার করা হবে। সর্বোচ্চ শাস্তিও হয়তো তাদের হবে। কিন্তু, আবারারের মা-বাবার তিলতিল করে গড়া স্বপ্নের এমন নির্মম মৃত্যুর শূন্যতা কে পূরণ করবে? কে দেবে তাদের সান্তনা?

শুদ্ধি অভিযানে ১৭ কোটি মানুষের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে বাবলা
বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে সম্রাট
খুলনা ল্যাবে পুলিশের চার সদস‍্যসহ ১০ জনের করোনা শনাক্ত
যশোর জেলায় বন্ধ থাকা সকল দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার সিদ্ধান্ত
চীন- ভারত মুখোমুখিঃ ‘যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হও’
হরিণাকুন্ডুতে ঝড়ে পড়া গাছ কেড়ে নিলো এক মেডিকেল ছাত্রের প্রাণ
করোনা কেড়ে নিল যশোরের মেধাবী তমা‌লের জীবন
নোবেলের বাবা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত
অভয়নগরের আরও দুইজন সহ খুলনার ল্যাবে ৭ জনের করোনা শনাক্ত
মৃত্যুর মিছিলে আরও ২১ জন : নতুন শনাক্ত ১হাজার ১৬৬ জন
অভয়নগরে পঞ্চম করোনা রোগী শণাক্ত
অভয়নগরে ফুফাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে মামাতো ভাইয়ের মৃত্যু
করোনায় দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র : মৃত্যের সংখ্যা প্রায় লাখের কোটায়
খুলনার ল্যাবে ঈদের দিনে ৬ পুলিশসহ ১০ জনের করোনা শনাক্ত
ঈদের দিনে ভারত আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষ দশে উঠে এলো
আম্পানের প্রভাবে হাঁটু পানিতে ঈদের নামাজ আদায়
খুলনার ল্যাবে নারী ও শিশুসহ ১০ জনের করোনা শনাক্ত
২৪ ঘণ্টায় আরও শনাক্ত ১ হাজার ৯৭৫ জন : মৃতের সংখ্যা ২১
অভয়নগরে সামাজিক দূরত্ব মেনে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত
দুঃসময়ে জেগেছে ম্লান চাঁদ : কাল খুশির ঈদ
খুলনার ল্যাবে নারী ও শিশুসহ ১০ জনের করোনা শনাক্ত
করোনাকে সঙ্গী করেই জীবিকার জন্য অর্থনৈতিক কাজ চালু করতে হবে- প্রধানমন্ত্রী
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি ও গাড়িয়াল পেশা বিলুপ্তপ্রায়

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

দেশের খবর এর আরও খবর

//