আজ শনিবার ৩০শে মে, ২০২০ ইং বিকাল ৫:৩৩

add

শহীদ নূর হোসেন দিবস আজ : পৈত্রিক ভিটায় স্মৃতি রক্ষার দাবি

নওয়াপাড়া ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ১০, ২০১৯ সময় : ০০:১৮:০৬

আজ ১০ নভেম্বর, রোববার শহীদ নূর হোসেন দিবস। ১৯৮৭ সালের এদিনে যুবলীগ নেতা নূর হোসেনের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকার রাজপথ। নূর হোসেনের এই আত্মত্যাগ তৎকালীন স্বৈরশাসক এইচ এম এরশাদের বিরুদ্ধে গণতন্ত্রকামী মানুষের আন্দোলনকে বেগবান করে। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

 

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে রোববার সকাল ৮টায় রাজধানীর গুলিস্তানে শহীদ নূর হোসেন স্কয়ারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন এবং তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর ১৫ দল, ৭ দল ও ৫ দলের সচিবালয়ের সামনে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি ছিলো। সেই কর্মসূচির সাথে সম্পৃক্ত ছাত্র সংগঠনগুলোর সমর্থনে অবস্থান ধর্মঘট ঘেরাও কর্মসূচিতে রূপ লাভ করে।

স্বৈরশাসকের সকল বাধাকে উপেক্ষা করে ১০ নভেম্বর সকাল থেকেই সচিবালয়ের চারদিকে আন্দোলনকারী ছাত্র-জনতার মিছিল সমবেত হয়। তখন তোপখানা রোডের মুখে পুলিশ বক্স পেরিয়ে শুরু হয় নূর হোসেনদের সাহসী মিছিল, সাহসী যুবক উদাম গায়ে লিখেছিল ‘গণতন্ত্র মুক্তিপাক-স্বৈরাচার নিপাত যাক’। সমাবেশ শুরুর সাথে সাথে সাথে শুরু হয় পুলিশের বেধড়ক লাঠিচার্জ, টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ। পল্টন তখন রণক্ষেত্র। এরইমধ্যে খবর আসে পুলিশের গুলির্বষণে শহীদ হয়েছেন নূর হোসেন। আহত হয়েছেন অসংখ্য। নূর হোসেন আত্মদানের মাধ্যমে সেদিন গণতন্ত্রের নতুন সংগ্রাম শুরু হয়। সেই সংগ্রামের ধারায় ১৯৯০ সালের ৪ ডিসেম্বর স্বৈরাচারী শাসক পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে শহীদ নূর হোসেন দিবস যথাযথ মর্যাদার সাথে পালনের জন্য আওয়ামী লীগ-এর সকল সহযোগী সংগঠনসমূহের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান। এদিকে নব্বইয়ের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে স্বৈরাচার বিরোধি আন্দোলনে জীবনদানকারী শহীদ নূর হোসেনের জন্ম ভিটা পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার নিভৃত পল্লী সাপলেজা ইউনিয়নের ঝাঁটিবুনীয়া গ্রামের বাড়িতে স্মৃতি রক্ষার দাবি জানিয়েছেন তাঁর স্বজন ও গ্রামবাসি। অকুতোভয় সংগ্রামী নূর হোসেনের পৈত্রিক বাড়ি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার নিভৃত পল্লী সাপলেজা ইউনিয়নের ঝাঁটিবুনীয়া গ্রামে।

দুর্ভাগ্য এই যে পৈত্রিক ভিটায় তাঁর স্মৃতি সুরক্ষায় আজও গড়ে ওঠেনি কোন স্মৃতি স্তম্ভ। শহীদ নূর হোসেনের গ্রামের বাড়িতে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, নূর হোসেনের বাবা ও চাচারা পাঁচ ভাই। নূর হোসেনের বাবা মজিবর রহমান হাওলদার ২০০৫ সালে মারা যান। তিনি পাঁচ ভাইদের মধ্যে তৃতীয় ছিলেন। এ ছাড়া নূর হোসেনের অপর তিন চাচা মোকলেসুর রহমান হাওলাদার চাঁন মিয়া হাওলাদার, রত্তন আলী হাওলাদার মারা গেছেন। নূর হোসেনের ছোট চাচা লাল মিয়া হাওলাদার বেঁচে আছেন। তিনি রাঙামাটিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করেন। তবে গ্রামে বড় চাচা মৃত মোকলেসুরের সন্তানরা ছাড়া বংশধরদের কেউ থাকেন না।

নূর হোসেনের চাচাত ভাই স্থানীয় একটি মসজিদের ইমাম মো. রুহুল আমীন হাওলাদার নূর হোসেনের পৈত্রিক ভিটায় বসবাস করেন। তিনি জানান, আমার ভাই গণতন্ত্রের জন্য জীবন দিছে। তবে জন্ম ভিটায় শহীদ ভাইয়ের স্মৃতি সুরক্ষায় কোন ব্যবস্থা হইল না। শহীদ ভাইয়ের নামে একটা এবতেদায়ী মাদরাসা করছিলাম পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে তা এখন অচল হয়ে পড়ে আছে। গ্রামের কাঁচা রাস্তায় কেবল এ বছর ইট বিছানো হইছে। এর বাইরে আর কিছু না। মাদারাসাটা চালু করতে চাই, পাশে একটি পাঠাগার আর শহীদ ভাইয়ের একটি স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণের দাবি জানাই।

জানাগেছে, ঢাকায় মঠবাড়িয়া বাসি কয়েকজন তরুণ মিলে শহীদ নূর হোসেনের স্মৃতি রক্ষায় জাগো লক্ষ নূর হোসেন নামে একটি সংগঠন গড়ে তোলেন। এছাড়া নূর হোসেনের গ্রাম ঝাঁটিবুনীয়া ও পূর্ব সাপলেজা গ্রামের কতিপয় তরুণ মিলে গড়ে তোলেন নূর হোসেন স্মৃতি পরিষদ। সংগঠন দুটি শহীদ নূর হোসেন দিবসে স্মরণসভার আয়োজন ছাড়া কিছুই করতে পারছেন না।

দাকোপে ঘুর্ণিঝড় বুলবুল আতংকে দেড় লক্ষাধিক মানুষ
উপজেলা আ’লীগের সদস্য হলেন জয়
করোনা প্রাদুর্ভাবে অভয়নগরে বিভা’র আর্থিক অনুদান প্রদান
মুক্তিপনের টাকা দিতে রাজি,তার পরও খুন হন ঝিকরগাছার রাকিবুল  
২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু : নতুন শনাক্ত ১ হাজার ৭৬৪
যশোরে যুবক খুন
ছেলের বউয়ের নির্যাতন সইতে না পেরে বৃদ্ধা সুনতি এখন বেনাপোলে
চুকনগরে এতিমের জমি জোরপূর্বক দখলে নেয়ার অভিযোগ
ঘরে করোনা রোগীর যত্ন নেবেন যেভাবে
যশোরে ভৈরব নদের খনন কাজ পুনরায় বন্ধ
তেরখাদায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৩ : ১৫ বাড়ি ভাংচুর লুটপাট
কয়রা উপকূলবাসীকে সর্বহারা করেছে আম্ফান : পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব
শুভকে নিজের চরিত্রে চান মাশরাফি
সুন্দরবনের করম জলে কুমির জুলিয়েট ৫২ ডিম দিয়েছে
ভেট্টোরি নিজের বেতন বাংলাদেশের কর্মীদের দিচ্ছেন
বাঁকড়ায় সরকারী গাছ কাটার সময় পুলিশের হাতে ৮ জন আটক
ঝিনাইদহে এসএসসিতে এ প্লাস পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে প্রতারণার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার
সেরা ওয়ানডে একাদশে একমাত্র অলরাউন্ডার সাকিব
কোটচাঁদপুরে পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত
বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী- ওবায়দুল কাদের
ধোনি আগামী বছরও বিশ্বকাপ খেলতে পারে
নৌপথে যাত্রী পরিবহনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ১৪ নির্দেশনা
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি ও গাড়িয়াল পেশা বিলুপ্তপ্রায়

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

দেশের খবর এর আরও খবর

//