আজ শুক্রবার ১৪ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:০১

add

শিরোনাম

মুখে মেছতার দাগ হলে করণীয়

নওয়াপাড়া ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯ সময় : ২৩:২৬:৫৮

জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ির কারণে কি মেছতা হয়? অনেক ক্ষেত্রেই মেছতার সুস্পষ্ট কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না, তবে হরমোনের ব্যাপারে একটি অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত। জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি কিংবা ইস্ট্রোজেন হরমোন গ্রহণ, গর্ভাবস্থা, সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি মেছতার অন্যতম কারণ। জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি যদিও মেছতার অন্যতম কারণ। তবে জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি খেলেই মেছতা হবে এমন কথা নেই। আবার জীবনে এক দিনও এই বড়ি খাননি অথচ তাদের মুখেও মেছতার দাগ হতে দেখা গেছে। তবে এ কথা সত্যি, মেছতার দাগ আছে এমন কেউ যদি চিকিৎসা করাচ্ছেন অথচ জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি খাওয়া বন্ধ করেননি, তবে এ ক্ষেত্রে এর থেকে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা একেবারেই কম। একে তিন ভাগে বিভক্ত করা হয়। ১. এপিডারমাল : যা ত্বকের বহিঃস্তরের উপরিস্তরে বিদ্যমান থাকে। যা চিকিৎসার মাধ্যমে সম্পূর্ণ সারিয়ে তোলা সম্ভব। ২. ডারমাল : যা ত্বকের বহিঃস্তরের নিচের স্তরে বিদ্যমান থাকে। এ ক্ষেত্রে চিকিৎসায় খুবই ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। ৩. মিশ্রিত অর্থাৎ যা ত্বকের অন্তঃস্তক ও বহিঃস্তক জুড়ে বিদ্যমান থাকে। এ ধরনের মেছতায় অনেক সময় ফলাফল ভালো আসে না।

 

মেছতার গতানুগতিক চিকিৎসা- এতদিন ধরে প্রায় সব চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরাই হাইড্রোকুইননকেই মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে মনে করত এবং যে কেউই মেছতার ক্ষেত্রে এটিকেই লিখে থাকত। এর সাথে ট্রেটিনয়েন এবং মৃদু স্টেরয়েডের সংযুক্ত ব্যবহার আরো ভালো ফল পাওয়া যায়। তবে আমাদের দেশের এক শ্রেণীর সাধারণ চিকিৎসক এবং অনেক ক্ষেত্রে রোগীরা নিজেরাই মেছতার জন্য বেটনোভেট মলম মাসের পর মাস এমনকি বছরের পর বছর ব্যবহার করে এমন রোগীর সংখ্যাও অনেক। এটি একটি দারুণ অযৌক্তিক ও ক্ষতিকর কাজ। মুখে বেনোভেট দীর্ঘদিন মাখলে মুখের ত্বকের জন্য যে সেটা কতটা ভয়ঙ্কর ক্ষতিকর তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শুধু একটি কথাই বলা যায়, দয়া করে এই কাজটি কেউ করবেন না। বর্তমান ও আধুনিক চিকিৎসা- হাইড্রোকুইনন বর্তমানেও ব্যবহার করা হয় এবং এর সাথে স্টেরয়েড মিশিয়ে ব্যবহার করলে আরো ভালো ফল পাওয়া যায়।

 

ক্ষেত্রবিশেষে ট্রেটিনয়েনও খুবই উপকারী। তবে বর্তমানে কোজিক এসিড ও এজেলিক এসিড এর ব্যবহারও শুরু হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে এতে বেশ সুফলও পাওয়া যাচ্ছে। তবে একটি ব্যাপার খুব স্পষ্ট করে বলা দরকার। এসব ওষুধ ত্বকের রঞ্জক পদার্থ ধ্বংস করে। কিন্তু ত্বকের কালো দাগ যদি সূর্যের আলোকরশ্মির সংস্পর্শে আসে তবে সে ক্ষেত্রে চিকিৎসা করেও তেমন সন্তোষ ফলাফল আনা সম্ভব নাও হতে পারে। তাই চিকিৎসার পাশাপাশি অর্থাৎ চিকিৎসা চলাকালীন অবশ্যই দিনের বেলায় বাইরে চলাচলের সময় সানব্লক ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করতে হবে। মনে রাখতে হবে বাইরে যাওয়ার অন্তত আধাঘণ্টা আগে এই সানব্লক মুখে মেখে নিতে হবে। মেছতা চিকিৎসায় সর্বশেষ ও কার্যকর সংযোজন হচ্ছে মাইক্রোডার্মো অ্যাব্রেশন।

 

একটি যন্ত্রের সাহায্যে ত্বকের সূক্ষ্ম ও সর্বোপরি স্তরটি তুলে ফেলা হয়। এটি একটি যন্ত্রের সাহায্যে করা হয় এবং এতে কোনো রকম ব্যথা পাওয়া যায় না। এই অবস্থায় মেছতার ওষুধ প্রয়োগ করলে ওষুধের কার্যকারিতা বহুলাংশে বৃদ্ধি পায় এবং মেছতার ক্ষেত্রে আরো দ্রুত ভালো ফল পাওয়া যায়। কেমিক্যাল পিলিং অর্থাৎ কিছু পযবসরপধষং প্রয়োগ করেও মেছতার চিকিৎসা করা হয়ে থাকে। তবে এ ক্ষেত্রে দাগ হতে পারে বিধায় যারা এ বিষয়ে সিদ্ধহস্তের নয় তাদের দিয়ে এটি না করানোই ভালো।

সুস্থ্য থাকতে ডায়েটে রাখুন পুষ্টিকর খেজুর
কদবেলে নিরাময় দেবে যেসব রোগ
বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে বাংলাদেশের স্বপ্নকে ধূলিস্মাৎ করার চেষ্টা হয়েছিল রওশন এরশাদ
দেশভাগের আগেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখেছিলেন কৃষিমন্ত্রী
এক নজরে খুলনা বিভাগের বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি (১৪ আগস্ট)
১৫ আগস্ট খালেদার জন্মদিন নিয়ে বিএনপিকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর
যশোরে করোনা উপসর্গে একজনের মৃত্যু
বাংলাদেশী ব্যবসায়ীরা শর্ত সাপেক্ষে ভারত ভ্রমণ করতে পারবেন
মতামত : বৈষম্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু
খুলনার ল্যাবে ১০৭ জনের করোনা শনাক্ত
খুলনার ট্রিপল মার্ডার মামলার আরও দুই আসামী গ্রেফতার 
খুলনায় ট্রিপল মার্ডারের আসামীদের গ্রেফতারে ৭ দিনের আল্টিমেটাম
যে কারনে অজুতে কনুই পর্যন্ত ধৌত করতে হয়
অবশেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ
সাকিব কি তবে ফিরছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে?
অল্প-স্বল্প কাজেও আলোচিত ঈশিতা
চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালে পিএসজি
খুলনায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় গণপরিবহনে জরিমানা
পোশাককর্মীকে ধর্ষণ : যুবক গ্রেফতার
যশোরের অভয়নগর ব্লাড ব্যাংক : নিয়েছে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহের মতো প্রশংসনীয় উদ্যোগ
কেশবপুরে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের মৃত্যু : এমপি শাহীন চাকলাদারের শোক প্রকাশ
বেনাপোল সীমান্ত থেকে ফেনসিডিলসহ আটক ১
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
অভয়নগরে চিকিৎসকের স্ত্রীর আত্মহত্যা
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
কিস্তি দিতে না পারায় ধান ও পালিত শুকর নিয়ে গেছে সমিতির লোকেরা!
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
ফুলতলায় র‌্যাবের অভিযানে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ অভয়নগরের ৩ জন আটক
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

টিপস এর আরও খবর