আজ শুক্রবার ৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং দুপুর ১:৫৪

add

মণিরামপুরে ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে আমন চাষিদের মাথায় হাত

রোহিতা (মণিরামপুর) সংবাদদাতা
প্রকাশিত: December 1, 2019 সময় : 23:30:35

মণিরামপুর উপজেলার মাহমুদকাটি গ্রামের বর্গা চাষি ইব্রাহিম। একবিঘা জমি লীজ নিয়ে আমন চাষ (গুটি স্বর্ণা) করেছেন। ধানের চারা রোপন থেকে শুরু করে ধান বিক্রির জন্য প্রস্তুত করতে তার খরচ হয়েছে ১২ হাজার টাকা। এক বিঘায় তিনি ধান পেয়েছেন ১৬ মণ। প্রতিমণ ধান উৎপন্ন করতে তার খরচ পড়েছে ৭৫০ টাকা। বিক্রি করতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন ধানের বাজার দর মণপ্রতি ৫৮০ টাকা। মণপ্রতি তার লোকসান ১৭০ টাকা। ইব্রাহিম বলেন, জমির মালিককে ছয় মণ শোধ করে থাকছে ১০ মণ। যা বিক্রি করলে আমি পাঁচ হাজার ৮০০ টাকা পাচ্ছি। সাথে ২ হাজার টাকার বিচালি বিক্রি করে মোট ৭ হাজার ৮০০ টাকা হচ্ছে। আমন চাষ করে মোট লোকসান ৪ হাজার ২০০ টাকা। ফলে মণ প্রতি লস ৪শ’ ২০ টাকা। উপজেলার স্বরণপুর গ্রামের বর্গা চাষি ফুরকান। তিনি ১১ হাজার টাকা খরচ করে একবিঘা জমিতে ১৫ মণ ধান পেয়েছেন।

 

জমির মালিককে ৬ মণ দিলে তার থাকছে ৯ মণ। ৫শ’ ৮০টাকা মণপ্রতি ধান ও ২ হাজার টাকার বিচালি বিক্রি করে পাচ্ছেন ৭ হাজার ২২০ টাকা। এই কৃষকের মণপ্রতি লোকসান ৪২০ টাকা। রঘুনাথপুর গ্রামের নূরআলম মিন্টু ২৫ কাঠা জমি বর্গা নিয়ে গুটি স্বর্ণা ধান করেছেন। ১৫ হাজার টাকা খরচ করে ২২ মন ধান পেয়েছেন। জমির মালিককে ৭ মণ শোধ করে তার থাকছে ১৫ মণ। সেই হিসেবে প্রতিমণ ধান উৎপন্ন করতে তার খরচ পড়েছে ১ হাজার টাকা। ৫৮০ টাকায় বিক্রি করলে মণপ্রতি তিনিও ৪২০ টাকা ক্ষতির শিকার হচ্ছেন। শুধু ইব্রাহিম, মিন্টু বা ফুরকান নন চলতি মৌসুমে আমন চাষ করে ক্ষতির শিকার হয়েছেন পট্টি গ্রামের শফিকুল, মাহমুদকাটি গ্রামের ইউসুফ, নুর আলম ও নাজিমসহ অনেকেই। নাজিম জানান, তিনি লীজ নিয়ে ৭ বিঘা জমিতে আমণ চাষ করেছেন। বিঘাপ্রতি ৩ হাজার টাকা করে লোকসান গুনতে হচ্ছে তাকে। কৃষকরা বলছেন, এই বছরই বোরো ও আমন ধান চাষ করে আমরা লস খাচ্ছি। এভাবে চললে আগামীতে ধান চাষ করা সম্ভব হবে না।

 

চলতি মৌসুমে উপজেলার ২২ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে আমন চাষ হয়েছে। ভরা মৌসুমে কাঙ্খিত বৃষ্টি না হওয়ায় কৃষকের সেচ বাবদ বিঘাপ্রতি ২ হাজার টাকা বেশি গুনতে হয়েছে। তারসাথে ঘুর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে ধানের ফলন কম হয়েছে বলে দাবি কৃষকদের। উপজেলার টেংরামারী বাজারের ধান ব্যবসায়ী ফয়েজ উদ্দিন বলেন, আমন ধান ওঠার শুরুতে গুটিস্বর্ণা (মোটা) ধান আমরা সাড়ে ৬০০ টাকা করে কিনেছি। গতকাল রোববার তা ৫৭০-৫৮০ টাকায় মণ কিনছি। আর ব্রি-৪৯ (চিকন) কিনছি ৬০০ টাকা করে। দিন গেলেই ধানের দাম কম হচ্ছে। ফলে ধান কিনে বিপাকে পড়তে হচ্ছে। ধানের বাজার স্থিতিশীল চান এই ব্যবসায়ী। এদিকে ধানের দাম ক্রমশ কমলেও চালের বাজার উর্ধ্বগামী হচ্ছে। বাজারে প্রতিকেজি মোটা চাল ৩৪ টাকা ও চেকনচাল ৩৮ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। চালের দামের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ধানের দাম বাড়ানোর দাবি কৃষকদের। সেই ক্ষেত্রে খোলা বাজারে মোটা ধানের মণ ৮০০ টাকা নির্ধারণের দাবি তাদের। মণিরামপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হিরক কুমার সরকার বলেন, দেশী জাতের ব্রি-৪৯, ব্রি-৭৫ ও ব্রি ৮৭ ধানের এবার আমনে বাম্পার ফলন হয়েছে। বিঘাপ্রতি কৃষক ২০-২২ মণ ধান পেয়েছেন। বাজারে এই ধানের মণ ৬৫০ টাকা করে। খোলা বাজারে ধানের দাম হাজার টাকার উপরে হলে কৃষক লাভবান হবেন বলে জানান এই কর্মকর্তা।

Print Friendly, PDF & Email
যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজছাত্রের মৃত্যু
খুলনা বিভাগে ৫১ জন এইডস রোগী সনাক্ত
ঐতিহাসিক যশোর মুক্ত দিবস আজ
পাইকগাছায় একই পরিবারের ৩ জন ক্যান্সারে আক্রান্ত : বাঁচার আকুতি
ফাউন্ডেশনকে অধিদফতর করলে সরকারি কর্মকর্তাদের লাভ হবে; প্রতিবন্ধীদের নয় প্রধানমন্ত্রী
খুলনায় শীর্ষ সন্ত্রাসী কনডম রিপন সহযোগীসহ আটক : বিপুল পরিমান অস্ত্র-গুলি উদ্ধার
কেশবপুরে দুই সন্তান নিয়ে অর্ধহারে-অনাহারে দিন কাটছে প্রথম স্ত্রী আকলিমার
যশোরে তিন চিল্লার জোড় ইজতেমা শুরু : ২০ জেলা থেকে আসছে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা
বাঘারপাড়া যুবলীগের একাংশের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত
যশোরে পরিবহন শ্রমিককে মারপিট : থানায় মামলা : আটক ২
যশোরের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও অস্ত্র ব্যবসায়ী বিহারী শাকিলের অস্ত্র ভান্ডার অক্ষত
সুন্দরবনে অসাধু কর্মকর্তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ জেলে-বাওয়ালীরা!
ফকিরহাটে জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত
বাঁকড়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় মটর সাইকেল আরোহী নিহত
সকালে ঘুম থেকে উঠেই প্যারালাইজড্ তাজিয়া!
শিরোমণিতে ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টে নড়াইল জয়ী
খানাবাড়ী নাজমুল-সোহাগ স্মৃতি ফুটবল টুর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত
বিপিএলে নিজেকে ছাড়িয়ে যেতে চান তাসকিন
কেশবপুরে নবাগত ইউএনও নুসরাত জাহানকে সংবর্ধনা প্রদান
নওয়াপাড়া মডেল পলিটেকনিকে বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
অভয়নগরে লাটারীর মাধ্যমে আমন ধান সংগ্রহ অভিযান অব্যহত
খুলনা ওয়াশার কার্যক্রমের প্রতিবাদে জেলা প্রশাসকের নিকট স্বারকলিপি প্রদান
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নওয়াপাড়া কলেজের স্বর্ণযুগ : ডাক্তারী পড়ার সুযোগ পেলো ৬ মেধাবী মুখ
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
অভয়নগরে কলেজ ছাত্রীকে স্কুল ছাত্রের ইভটিজিং : কারাদন্ড
অতিরিক্ত সচিব হলেন ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আব্দুল বারিক
বসুন্দিয়ায় ভৈরব ব্রীজ ঝুঁকিপূর্ণ : কাঁপছে সেঁতু, আতংকে পথচারী ও এলাকাবাসী
অভয়নগরে ব্যবসায়ীর বাড়ির রিজার্ভ ট্যাংকি থেকে রং মিস্ত্রীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার
নওয়াপাড়ায় রং মিস্ত্রী ঠিকাদার হাবিব হত্যার রহস্য উম্মোচন : ঘাতক মামুন আটক
নওয়াপাড়ায় ফার্মেসিতে নকল ওষুধ বিক্রি হচ্ছে !

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

খুলনা বিভাগীয় এর আরও খবর