দুই বাংলার জনপ্রিয় মুখ জয়া আহসান। বাংলাদেশের অভিনেত্রী হলেও তিনি সমানভাবে তার প্রতিভার আলো ছড়িয়েছেন অপার বাংলাতেও। কলকাতার অসংখ্য ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন, জয় করেছেন অগণিত ভক্ত ও সমর্থকদের মন। তাই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যস্ততার দরুণ বছরের বেশ খানিকটা সময় তাকে অপার বাংলাতে থাকতে হয়।

 

সম্প্রতি কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জয়া আহসান বলেন, “কলকাতা আমার জীবনে বিচ্ছিন্ন কিছু নয় আর। ঢাকা যদি হয় শেকড়, কলকাতায় আমি আমার ডালপালা মেলেছি। ওই যে আমার বাড়ির জানলা, তা তো যে কোনও বাড়ির চোখ। কলকাতার বাড়ির এই দীঘল চোখের জানলাটাই ছিল আমার মুক্তির দরজা।”

 

জয়া মনে করেন করোনাসহ প্রাকৃতিক নানা মহামারী আমাদেরকে সংশোধনের সময় দিয়েছে। দুই দেশের এই দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে তিনি নিজের উদ্বেগের কথা জানান।

 

জয়া আরো বলেন, “বর্ডার তো সিল করে দেওয়া আছে। যে দিন প্রথম ঢাকা থেকে বাংলাদেশ বিমান উড়বে সে দিন প্রথম যাত্রী বোধহয় আমিই হব। মাঝে ভেবেছিলাম, রোড ট্রিপ করে কলকাতা চলে যাই! সেখানেও পথ বন্ধ।”

 

তবে গৃহবন্দি অবস্থায় থাকলেও জয়া এই সময়টাতে বিভিন্নভাবে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন। বাগান করেছেন, ছবি দেখেছেন।

 

অবশেষে সার্বিক পরিস্থিতির খুব দ্রুতই উন্নতি হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *