গত কয়েক দিন সংক্রমণের সংখ্যাটা ছিলো ৫০ থেকে ৭০ এর মধ্যে। এতেই ধারণা করা হচ্ছিল খুলনায় করোনা সংক্রমণের হার কমে যাচ্ছে। আর তাতেই নিজেদের ইচ্ছামত ঘুরে বেড়িয়েছে খুলনাবাসী। ফলাফলটা হাতে হাতেই পেয়েছে তারা। কোরবানির ঈদের প্রায় দুই সপ্তাহ আগ থেকেই এ অঞ্চলে সংক্রমণের হার কমে আসছিল।

 

 

 

 

খুলনায় শনাক্ত বিবেচনায় করোনা সংক্রমণের সংখ্যা একদিনেই প্রায় ৪০ জন বৃদ্ধি পেয়েছে। গত মঙ্গলবারে যে সংখ্যা ছিলো মাত্র ৫৭ জন। বুধবারে সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০১ জনে। বুধবার শনাক্ত বিবেচনায় সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী উঠতে দেখা গেছে। এদিন খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) আরটি-পিসিআর ল্যাবে নতুন করে আরও ১০১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

 

 

 

 

এর মধ্যে ৮৮ জনই খুলনা জেলা ও মহানগরীর বাসিন্দা। সন্ধ্যায় খুমেকের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, বুধবার খুমেকের আরটি-পিসিআর মেশিনে মোট ২৮১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১০১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

 

 

 

 

খুলনা জেলার নমুনা ছিল মোট ২০৮টি। এর মধ্যে ৮৮ জনের করোনা পজিটিভ আসে। এছাড়া এ ল্যাবে বাগেরহাটের ৬ জন, সাতক্ষীরার ১৩ জন, যশোরের ২ জন, ঝিনাইদহের ১ জন ও মাগুরার ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *