আজ শুক্রবার ২৯শে মে, ২০২০ ইং সকাল ৭:২৭

add

খাজুরায় চিত্রা নদীর ওয়াকওয়ে যেন ময়লার ভাগাড়

নাজমুস সাকিব আকাশ, খাজুরা (যশোর)
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০ সময় : ২৩:৫৭:৪২

যশোরের ঐতিহব্যবাহী খাজুরা বাজারের কোল ঘেঁষে বয়ে গেছে চিত্রা নদী। ২০১৮ সালে বাজারের যানজট নিরসন ও হাটার জন্য নদীর পাড়ে ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে সেই ওয়াকওয়ের উপরেই ফেলা হচ্ছে বাজারের ময়লা-আবর্জনা। দেখলে মনে হয় নদী নয়; এটা যেন ময়লা ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। এতে দূষিত হচ্ছে বাজার, নদী ও তার পার্শ্ববর্তী দু’টি স্কুলের পরিবেশ। বাতাসে ছড়াচ্ছে নানা ধরনের রোগব্যাধি।

 

পবিত্রতা নষ্ট হচ্ছে কেন্দ্রীয় মসজিদ ও ঈদগাহের। দিন দিন ভরাট হয়ে যাচ্ছে নদী। এদিকে বাজারটি প্রতি বছরে প্রায় কোটি টাকায় ইজারা হলেও এ বছর হয়েছে তার অর্ধেক। তবে তা বাজার উন্নয়নে ব্যবহার হচ্ছে না বলে জানিয়েছে হাট ইজারা কর্তৃপক্ষ। সরেজমিনে বাজারটি ঘুরে দেখা গেছে, শহরতলি ও বাঘারপাড়া উপজেলা সদর থেকে ১৩ কিলোমিটার দুরে চিত্রা নদীর পাড়ে ২০০ বছরের পুরাতন এ বাজারটির অবস্থান। সদর ও বাঘারপাড়ার ৫টি ইউনিয়নের মানুষের ব্যবসার মূল কেন্দ্রবিন্দু খাজুরা।

 

দেশের দক্ষিনাঞ্চলের ধান-পাট, সব্জি ও চাউলের অন্যতম মোকাম বাজারটি। সপ্তাহের প্রতি রোববার ও বৃহস্পতিবার এখানে হাট বসে। এ দু’দিন বাজারে সর্বত্র যানবাহন ও মানুষের তিল ধারণের ঠাই থাকে না। সে কারণে ২০১৮ সালে যানজট নিরসন ও এলাকাবাসীর দুর্ভোগ পোহাতে নদীর প্রেসঘাট থেকে ব্রীজঘাট পর্যন্ত দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে এই ওয়াকওয়ের উপর বাজার ও বাসা-বাড়ীর বিভিন্ন বজ্য, সাপ্তাহিক দু’হাটের সকল ময়লা আবর্জনা ফেলায় বিশাল ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে।

 

এর একেবারেই সন্নিকটেই কেন্দ্রীয় মসজিদ, ঈদগাহ, ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অসংখ্য বাসা-বাড়ি। দুর্গন্ধ এড়াতে দিনের বেলায় আবর্জনার স্তুপে আগুন দেওয়াতে ধোঁয়া আচ্ছন্ন হয়ে যাচ্ছে চারিদিক। ওয়াকওয়েতে চলাচল করতে নাকে রুমাল ব্যবহার করতে হচ্ছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর যেন দুর্ভোগের অন্ত নেই। কেউ কেউ বিদ্রুপ করে চিত্রা নদী এখন বাজারের অঘোষিত ডাম্পিং জোন বলে আখ্যা দিয়েছে।

 

স্থানীয় বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলাম ফারুক, মাসুম রেজা খান, নারায়ন অধিকারীসহ অনেকেই বলেন, শীত-গরমে আমরা নদীর পাড়ে বসে বিশ্রাম করি। আবার স্বাস্থ্য সচেতন বিভিন্ন বয়সের অনেকেই শরীর ভালো রাখার জন্য এ ওয়াকওয়েতে নিয়মিত হাটাহাটি করে। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী চলাচলের বিকল্প পথ এটি। তবে নদীর পাড়ে এভাবে ময়লা ফেলার কারণে দূর্গন্ধে আর চলাচল করা সম্ভব হচ্ছে না।

 

এ ব্যাপারে টিপিএম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দশরত কুমার ও মাখনবালা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতিয়ার রহমান জানান, ময়লার ভাগাড়ের কারণে ধোঁয়া ও দূর্গন্ধে দরজা-জানালা বন্ধ করেই ক্লাস নিচ্ছে হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা খেলাধুলার পরিবেশ পাচ্ছে না। অনেক অভিভাবক এ স্কুলে থেকে তাদের সন্তানকে নিয়ে গিয়ে অন্য স্কুলে ভর্তি করাচ্ছে। বর্তমানে এ সমস্যাটি প্রতিষ্ঠানের পড়ালেখার মান ও পরিবেশ নষ্টের কাল হয়ে দাড়িয়েছে।

 

খাজুরা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্পাদক জিয়াউর রহমান বলেন, গত ২০১৬ সালে বাজার কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ পর এখনো নতুন কোন কমিটি গঠন করা হয়নি। যে কারণে বৃহৎ এ বাজারটি পরিচালনায় সঠিক তদারকি হচ্ছে না বলে জানান তিনি। এদিকে বাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী পুষ্প জানান, ময়লা ফেলার নির্দিষ্ট কোন জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়েই তাদের এখানে ময়লা ফেলতে হচ্ছে। ময়লা ফেলার ব্যাপারে হাটের বর্তমান ইজারাদার সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা জানান, আমি সরকারের নিকট থেকে হাট কিনে নিয়মিত রাজস্ব দিই।

 

পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের মাধ্যমে সর্বদা হাট পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করি। তবে ময়লার ফেলার জায়গার ব্যবস্থা করার দ্বায়িত্ব স্থানীয় জনপ্রতিনিধির (ইউপি চেয়ারম্যান)। নির্দিষ্ট জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়েই নদীর পাড়ে ময়লা ফেলতে হচ্ছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সবদুল হোসেন খান বলেন, আমি ময়লার স্তুপ সরানোর জন্য উদ্যোগ নিলে স্থানীয় এমপি ওয়াকওয়ে নির্মাণের ঘোষনা দিলে সেটি করা সম্ভব হয়নি। ইতিমধ্যে আমার কাছে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছে।

 

বিষয়টি আমি গুরুত্বের সাথে দেখছি। দ্রুত এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পরে বাজার উন্নয়নে একবার ২০ লাখ টাকা পেয়েছি। এ দিয়ে মাছ ও তরকারি চান্নি, সোলার স্ট্রীট লাইটসহ বাজার উন্নয়ন একাধিক কাজ করেছি। এব্যাপারে যশোর-৪ আসনের এমপি রনজিত কুমার রায় বলেন, বাজারের বাইরে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের পাশে জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে। দ্রুত জনগণের এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান হবে।

প্রেসক্লাব যশোরের নির্বাহী কমিটির সভায় অনুষ্ঠিত
কোটচাঁদপুরের সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে কূরুচি পূর্ণ মন্তব্য করায় প্রতিবাদসভা
ভারতে ফসলের মাঠ থেকে লোকালয়ে হানা দিচ্ছে পঙ্গপাল
করোনায় প্রাণহানির দায় সরকারকেই নিতে হবে – রিজভী
খুলনার এক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রে করোনা আক্রান্ত
গণপরিবহন চলাচলে আলোচনার মাধ্যমে পরিকল্পনার অনুরোধ – সেতুমন্ত্রীর
চিকিৎসার নামে প্রতিবন্ধী তরুণীকে ধর্ষণ : কবিরাজ গ্রেফতার
বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল
করোনার সঙ্গে মানিয়ে চলবেন যেভাবে
প্রত্যেকের মাস্ক ব্যবহার অত্যাবশ্যক – ডা. নাসিমা সুলতানা
শরণখোলায় হরিণ উদ্ধার করে সুন্দরবনে অবমুক্ত
বটিয়াঘাটায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২৪টি দোকানঘর ও গোডাউন পুড়ে ভষ্মীভূত
করোনা আক্রান্ত ভাইকে দেখতে গিয়ে করোনায় বোনের মৃত্যু
বিএসএমএমইউয়ের পরীক্ষায়ও ডা. জাফরুল্লাহর করোনা পজিটিভ
পাইকগাছায় লোনাপানি কেন্দ্রের ভ্রাম্যমান মৎস্য ক্লিনিকের উদ্বোধন
পাইকগাছায় দেলুটি’র ক্ষতিগ্রস্থ বেড়িবাঁধ নির্মাণকাজ প্রাথমিকভাবে সম্পন্ন
৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে শুধু আন্তঃনগর ট্রেন
ফুলতলায় ৭’শ শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ
মোংলায় কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ : ‘সিরিয়াল র‌্যাপিস্ট’ টুটুল গ্রেফতার
১৫ জুন পর্যন্ত মানতে হবে ১৫ শর্ত
শুক্রবারে তৌকীর আহমেদের ‘দারুচিনি দ্বীপ’
রূপসায় স’মিলের মালিকের ঝুলান্ত লাশ উদ্ধার
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি ও গাড়িয়াল পেশা বিলুপ্তপ্রায়

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

খুলনা বিভাগীয় এর আরও খবর

//