আজ বৃহস্পতিবার ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং বিকাল ৩:১২

add

কালীগঞ্জে পুঁইশাক চাষে ভাগ্য ফিরেছে কৃষক জাহাঙ্গীরের

বেলাল হুসাইন বিজয়, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২০ সময় : ০০:০৯:৩৫

আগে বিক্রি করলেন ডগা, এখন ফল বা মেছড়ি পরে বিক্রি করবেন বীজ। এ যেন একের ভিতরে তিন। ইতোমধ্যে ডগা আর মেছড়ি থেকে প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা পেয়েছেন। পরে বীজ থেকেও আসবে বেশ। সব মিলিয়ে কৃষক জাহাঙ্গীরের যাবতীয় খরচ বাদে দেড় লক্ষাধিক টাকা আসবে বলে আশা। তার ভাষ্য, অন্য ফসল চাষ করে উৎপাদন ব্যয় বাদ দিলে খুব বেশি লাভ থাকে না। আবার ব্যয়বহুল রাসায়নিক সার ও কীটনাশক দিয়ে উৎপাদিত সবজি খেলে মানবদেহের চরম ক্ষতি। তাই তিনি ২৫ শতক জমিতে জৈব পদ্ধতিতে উচ্চ ফলনশীল জাতের পুঁইয়ের চাষ করেছেন। এখন এলাকার অন্য কৃষকদের নজরও পুইয়ের দিকে। লাভবান কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেন ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের বারোপাখিয়া গ্রামের মৃত দলিল উদ্দীনের ছেলে। সরেজমিনে, কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেনের মেছড়ির ক্ষেতে গেলে দেখা যায়, পাটকাঠি আর বাঁশ ও শক্ত মোটা সুতায় তৈরী করা হয়েছে বান বা টাল।

যে বানের উপর যেন প্রতিযোগীতা করে বেয়ে বেড়াচ্ছে পুইয়ের ডগাগুলো। সব ডগার গিরায় গিরায় ধরে আছে বিভিন্ন বয়সী মেছড়ি। কিছু লালচে রঙের এখনই খাওয়ার উপযোগী। কিছু মাঝারি আবার কিছু একবারে ছোট। রাত পোহালেই হাটের দিন তাই কৃষক জাহাঙ্গীর কৃষি শ্রমিক নিয়ে মেছড়ি তুলতে মহাব্যস্ত। কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, মাঠে তার মোট ৮ বিঘা মত চাষযোগ্য জমি আছে। অন্য জমিগুলোতে ধান ও অন্য ফসলের চাষ করেছিলেন। আর ২৫ শতকের একখন্ড জমিতে পুঁইয়ের চাষ করেছেন। কিন্ত পুঁইয়ের জমিটি থেকে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা আয় হয়েছে। যা অন্য সবগুলো জমির ফসল বিক্রি করেও এতোটা লাভ হয়নি। তিনি আরও বলেন, পুঁইয়ের জমিটি অপেক্ষাকৃত নিচু। ফলে জলাবদ্ধতা হতে পারে এমন ঝুঁকির মধ্যেও এ জমিতে পুঁইয়ের চারা লাগিয়েছিলেন। প্রায় ৯ মাস আগে লাগানো চারাগুলো যখন তরতাজা হয়ে উঠেছিল তখন কয়েকদফা বৃষ্টির আঘাতও এসেছে। কিন্ত দ্রুত পানি নিষ্কাষনের জন্য ক্ষতি হয়নি। পরে লতাগুলো খানিকটা লম্বা হলে শক্ত করে টাল বা বান দিয়েছিলেন লতাগুলো আপন গতিতে বেড়ে উঠতে।

এর কিছুদিন পর থেকেই পুইশাকের ডগা কেটে বিক্রি শুরু করেন। প্রায় ৩ মাস এ ডগা বিক্রি করে প্রায় ৪০ হাজার টাকা পেয়েছেন। পরে ফল আসার সময়ে শীতের আগমনের সাথে সাথে কিছুদিন ডগা কাটা বন্ধ রেখে পরিচর্যা করতে থাকেন। এ সময়ে প্রত্যেক ডগার গিরায় গিরায় মেছড়ি বা বীজ বড় হলে চড়া দামে বিক্রি শুরু করেন। তিনি বলেন প্রথমদিকে প্রতিকেজি মেছড়ি ৮০ টাকায়ও বিক্রি করেছেন। তিনি বলেন, প্রতি সপ্তাহে ২ দিন মেছড়ি তুলে বাজারে বিক্রি করছেন। এখনও গাছ সতেজ রয়েছে ফলে আরও বেশ কিছুদিন মেছড়ি বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহিদুল করিম জানান, উপজেলার নিয়ামতপুর ইউনিয়নের বারোপাখিয়া গ্রামের কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেন তার ২৫ শতক জমিতে উচ্চ ফলনশীল জাতের পুইয়ের চাষ করেছেন। প্রথম দিকে প্ুঁইয়ের ডগা বিক্রি করে বেশ পয়সা পেয়েছেন। এখন বিক্রি করছেন পুঁইয়ের ফল বা মেছড়ি। তিনি আরও জানান, চলতি বছরে সবজির দাম ভালো থাকায় কৃষক জাহাঙ্গীর বেশ লাভবান হয়েছে। তিনি কয়েক দফা কৃষক জাহাঙ্গীরের ক্ষেতে গিয়েছেন। অর্গানিক পদ্ধতিতে চাষ করার জন্য তাকে উৎসাহিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
সরকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে -অমিত
নওয়াপাড়ায় রোটারী ক্লাবের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ
গিলাতলায় অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের উত্তেজনা
বাঘারপাড়ায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশ
অভনগরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিনারার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন
ফুলতলায় নার্স তাসলিমা আফরোজের অনিয়ম যেন নিয়ম হয়ে উঠেছে!
দৈনিক নওয়াপাড়ার সাংবাদিককে দেয়া পীরজাদা শাহ্ হাদীউজ্জামানের শেষ সাক্ষাৎকার
ঝিনাইদহের সাংবাদিকের পিতা এ্যাড. শহীদুল্লাহ আর নেই
কালীগঞ্জে মুজিব জন্মশতবার্ষিকী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত
ভাষা আন্দোলনের ৬৮ বছর মহেশপুরে ২৫টি মাদ্রাসার একটিতেও শহীদ মিনার নেই!
যেসব খাবার খেলে দ্রুত সুস্থ হবে পক্সের রোগী
যেসব খাবার খেলে দ্রুত সুস্থ হবে পক্সের রোগী
‘পিতার আদর্শে মানব সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে চাই’
শার্শায় শিক্ষা সফরের বাস দুর্ঘনা : চালক নিহত : শিক্ষার্থীসহ আহত ২০
যবিপ্রবির ৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার : অনশন স্থগিত
খুলনায় জনবান্ধব ভূমিসেবা ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সেমিনার
পাউবো ঠিকাদারের খাম-খেয়ালীপনা : বাগেরহাটে মুক্তিযোদ্ধার ঘরের সামনে গর্ত!
বাগেরহাটে ৩০ কোটি টাকার ভারতীয় শাড়ীসহ ১২ পাচারকারী আটক
কেশবপুরের মানুষ সবসময় দরজা খুলে নিশ্চিন্তে ঘুমাবে -শাহীন চাকলাদার
মণিরামপুরে মুখ থুবড়ে পড়েছে আইডিএলআরএস সফটওয়্যার কার্যক্রম
মুক্তেশ্বরী নদীর বুকে মরণ ফাঁদ : ভয়ে দুরু দুরু বুক!
অভয়নগরে শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণ প্রচেষ্টায় আটক ১
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
অভয়নগরে যাত্রী বেশে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের চেষ্টা : গণপিটুনিতে নিহত ছিনতাইকারী
নওয়াপাড়া কলেজের স্বর্ণযুগ : ডাক্তারী পড়ার সুযোগ পেলো ৬ মেধাবী মুখ
অতিরিক্ত সচিব হলেন ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আব্দুল বারিক
অভয়নগরে ব্যবসায়ীর বাড়ির রিজার্ভ ট্যাংকি থেকে রং মিস্ত্রীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

খুলনা বিভাগীয় এর আরও খবর