আজ রবিবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং ভোর ৫:৫২

add

আন্তর্জাতিক আদালতে গণহত্যার পক্ষেই সাফাই গাইলেন সু চি

নওয়াপাড়া ডেস্ক
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ সময় : ২৩:৪০:০০

মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের হত্যা, ধর্ষণ, গণধর্ষণ ও গণহত্যার অভিযোগে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে (আইসিজে) দায়েরকৃত মামলার দ্বিতীয় দিনের শুনানি শুরু হয়েছে।  বুধবার নেদারল্যান্ডসের রাজধানী দ্য হেগে এই শুনানি শুরু হয়। গাম্বিয়ার দায়েরকৃত মামলার শুনানিতে অংশ নিয়ে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি গণহত্যার পক্ষেই সাফাই গাইলেন। তিনি বলেন, দুঃখজনকভাবে রাখাইনের অসম্পূর্ণ এবং বিভ্রান্তিকর চিত্র উপস্থাপন করেছে গাম্বিয়া। এখানে শুধুমাত্র অনুমানের ওপর ভিত্তি করে গণহত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে; যা হতে পারে না। সামরিক বাহিনীর অভিযানে রক্তপাত হলেও গণহত্যার মতো কিছু হয়নি। বক্তব্যের শুরুতে সু চি আর্ন্তজাতিক আইন ও সনদসমূহের বাধ্যবাধকতার বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, গণহত্যার উদ্দেশে অভিযান পরিচালনার অভিযোগে বিচার শুরু হয়েছে। রাখাইনে মানবাধিকার লঙ্ঘন কোনোভাবেই মেনে নেবে না আমাদের সরকার।

 

 

যখন দেশের বিচার ব্যবস্থা ব্যর্থ হবে, শুধু তখনই আন্তর্জাতিক বিচার আদালত এর বিচার করতে পারবে। তিনি বলেন, যেসব সেনার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ প্রমাণিত হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। যদি মিয়ানমার সামরিক বাহিনী এমন কোনো কাজ করে থাকে; যেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে। তাহলে দেশের সংবিধান অনুযায়ী তাদের বিচার হবে। রাখাইন পরিস্থিতি জটিল এবং রোহিঙ্গারা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বলে স্বীকার করেছেন সু চি। যে কারণে অনেকে নিরাপত্তার জন্য বাংলাদেশে পালিয়েছে। তবে ২০১৭ সালের রক্তাক্ত অভিযানকে বারবার তিনি অভ্যন্তরীণ সংঘাত বলে দাবি করে আসছেন। সু চি বলেন, স্থানীয় সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) হামলার জবাবে সেনাবাহিনী অভিযান চালিয়েছে। তিনি বলেন, মিয়ানমারের এই মামলায় গণহত্যার অভিপ্রায় শুধুমাত্র অনুমান নির্ভর হতে পারে না। সু চি বলেন, রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এমন গণহত্যার উদ্দেশ্য কী হতে পারে; যা অন্যায় কাজ করার দায়ে অভিযুক্ত সৈনিক ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সক্রিয়ভাবে তদন্ত, বিচার ও শাস্তি দেয়? যদিও এখানে সবার মনযোগ সামরিক বাহিনীর সদস্যদের ওপর তারপরও আমি আপনাকে আশ্বস্ত করছি যে, যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে বেসামরিক অপরাধীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে। মিয়ানমারের এই রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টার দাবি, সেনা সদস্যরা যুদ্ধাপরাধ করে থাকলে তা মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ তদন্ত ও বিচার ব্যবস্থার মাধ্যমে নিষ্পত্তি হবে।

 

এ বিষয়টিকে আন্তর্জাতিকীকরণের সুযোগ নেই। ১৯৪৮ সালের গণহত্যা সনদ এখানে প্রযোজ্য নয়। ২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনে চালানো মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ক্লিয়ারেন্স অপারেশনকে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে বলেও দাবি করেছেন সু চি। সু চি বলেন, ক্লিয়ারেন্স অভিযান পরিচালনার সময় কখনও কখনও অননুমোদিত শক্তি প্রয়োগ করে থাকতে পারে সেনাবাহিনী। তবে তিনি বলেন, পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইনের পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল এবং এটি বাইরে থেকে অনুধাবন করা সম্ভব নয়। গাম্বিয়ার আইনজীবী অধ্যাপক সাবাস গত মঙ্গলবার বলেছিলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে জোর করে বাংলাদেশে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রাক-তদন্তে জোরপূর্বক বিতাড়নকে মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করা যেতে পারে। সু চি বলেন, সুতরাং রোহিঙ্গাদের বাধ্যতামূলক দেশ ত্যাগের অভিযোগটি মানবতাবিরোধী অপরাধ হলেও গণহত্যা হতে পারে না। গত মঙ্গলবার নেদারল্যান্ডসের রাজধানী দ্য হেগে জাতিসংঘের শীর্ষ এই আদালতে সাবেক গণতন্ত্রের প্রতীক সু চিকে রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধের আহ্বান জানায় মামলার বাদী আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। মিয়ানমারের সামরিক জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে টানা আন্দোলন করে বিশ্বজুড়ে প্রশংসিত হয়েছিলেন সু চি; কিন্তু এখন সেই সেনাবাহিনীর পক্ষ নিয়েই গণহত্যার দায় এড়াতে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়ালেন।

বেনাপোল দিয়ে ভারতে গমনকারী পার্সপোট যাত্রীদের সময়সীমা বৃদ্ধি
ধারাবাহিক র‌্যালির ডাক মমতার
ডুবন্ত ভাইকে তুলতে গিয়ে ডুবে গেল আরেক ভাই
পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু
পাওনা টাকা চাওয়ায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে খুন
খুলনায় শিশুর শ্লীলতাহানীর চেষ্টা : এনজিওকর্মী আটক
অভয়নগরে হত্যা-চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলার আসামী মনজুর মেম্বরসহ আটক ২ : ওসি প্রশংসিত
শার্শায় বোরো আবাদে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা
দেশব্যাপী নারী-শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদে ঝিনাইদহে মানববন্ধন
বাঁকড়ায় পিতৃহারা শিক্ষার্থীর কিডনী প্রতিস্থাপনে সাহায্যের আবেদন
সেনা মোতায়েনে যুক্তরাষ্ট্রকে ৫০ কোটি ডলার দিয়েছে সৌদি
খুলনা বিভাগের প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের বাছাই প্রক্রিয়ার উদ্বোধন
ভিন্নমত পোষণ করলেই নিস্তব্ধ করে দেয়া হচ্ছে মির্জা ফখরুল
নীতি নৈতিকতার প্রশ্নে আমরা আলাদা হয়েছি -ইকবাল কবির জাহিদ
যশোরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবলে গোপালগঞ্জের জয়
ঝিনাইদহের একজনসহ ইজতেমায় আসা আরও ৪ মুসল্লির মৃত্যু
যশোরেও জাতীয় সঞ্চয় সপ্তাহ শুরু
চমক নিয়ে আসছেন কন্ঠ শিল্পী উপমা
ফকিরহাটে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী
চীন সর্বোচ্চ সম্মানের সঙ্গে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করবে রাষ্ট্রদূত
বিপিএলে আরও বেশি পারিশ্রমিক চান মুশফিক
শৈলকুপা থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবীতে সড়ক অবরোধ
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
নওয়াপাড়া কলেজের স্বর্ণযুগ : ডাক্তারী পড়ার সুযোগ পেলো ৬ মেধাবী মুখ
অভয়নগরে যাত্রী বেশে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের চেষ্টা : গণপিটুনিতে নিহত ছিনতাইকারী
অতিরিক্ত সচিব হলেন ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আব্দুল বারিক
অভয়নগরে কলেজ ছাত্রীকে স্কুল ছাত্রের ইভটিজিং : কারাদন্ড

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

বিশ্বজুড়ে এর আরও খবর