আজ বৃহস্পতিবার ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং সকাল ৯:৪৯

add

অম্লান ৭ মার্চ : এক অনন্য ভাষন

নওয়াপাড়া ডেস্ক
প্রকাশিত: মার্চ ৭, ২০২০ সময় : ০০:৫৫:৩২

আজ অম্লান সেই ৭ মার্চ। ১৯৭১ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু রেসকোর্সের জনসভায় বাঙালীর স্বপ্নের বাণী উচ্চারণ করেছিলেন। ঘোষণা করেছিলেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ একই সঙ্গে তিনি সাত কোটি বাঙালীকে মুক্ত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। তাঁর এই ভাষণকে বিশ্বের ইতিহাসের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ভাষণের অন্যতম বলে গণ্য করা হয়।

 

 

এই ভাষণই বাঙালী জাতিকে প্রস্তুত করেছিল মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে। পাকিস্তানী হানাদারদের বিরুদ্ধে লড়াইয়েও তা প্রেরণা হিসেবে কাজ করেছে। বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা সংগ্রামে শরিক হওয়ার ডাক দিয়েছিলেন; কিন্তু পাকিস্তানী শাসকদের সঙ্গে নিয়মতান্ত্রিক আলোচনার পথ থেকে পিছিয়ে যাননি। এটা নিঃসন্দেহে তাঁর বিচক্ষণতা ও দূরদর্শিতার পরিচয় বহন করে। কিন্তু পাকিস্তানী হানাদাররা বাঙালীকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করে।

 

 

একদিকে আলোচনা চলেছে, অন্যদিকে তারা পশ্চিম পাকিস্তান থেকে সৈন্য ও অস্ত্র আনা অব্যাহত রেখেছে। তারা কখনই এ দেশের মানুষের ন্যায্য দাবি মেনে নিতে চায়নি। তারা চেয়েছিল বাংলার মানুষকে চিরকাল গোলাম করে রাখতে। বস্তুত ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু যে ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন, তার একটি বিশাল ও রক্তক্ষয়ী পটভূমি রয়েছে। ১৯৪৭ সালের পর ২৩ বছরের আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তা ধীরে ধীরে গড়ে উঠে।

 

 

এজন্য এ দেশের মানুষকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে, অনেক আত্মত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। কিন্তু ক্ষমতার গর্বে উন্মাতাল পাকিস্তানী শাসকরা কখনও উপলব্ধি করেনি, এভাবে অন্যায়-জুলুমের মধ্য দিয়ে কোন সচেতন মানবগোষ্ঠীকে স্থায়ীভাবে দাবিয়ে রাখা যায় না। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ রমনার রেসকোর্সের জনসভায় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের মধ্য দিয়ে এদেশের মানুষের ভবিষ্যত নির্ধারিত হয়।

 

 

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মানুষ শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করেছে শান্তিপূর্ণভাবে-নিয়মতান্ত্রিক পথে সমস্যা সমাধানের। কিন্তু ২৫ মার্চ রাতে বিশ্বাসঘাতক পাকিস্তানী হানাদাররা সব ন্যায়নীতি লঙ্ঘন করে ঝাঁপিয়ে পড়ে নিরস্ত্র বাঙালীর ওপর। সেদিন ‘যার যা আছে তাই নিয়ে’ এ দেশের মানুষ হানাদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

 

 

দীর্ঘ নয় মাসের নিরন্তর মুক্তির লড়াইয়ের পর বিজয়ী হয় জাতি। তাই ঐতিহাসিক ৭ মার্চের গুরুত্ব আজও অম্লান। মূলত ৭ মার্চের ভাষণই ছিল স্বাধীনতার ঘোষণা এবং একই সঙ্গে স্বাধীনতা অর্জনের নির্দেশিত পথ।

 

 

জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা -ইউনেস্কো প্যারিসে অনুষ্ঠিত এর দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে ৩০ অক্টোবর ২০১৭ তারিখ বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে ‘বিশ্ব ঐতিহ্য দলিল’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে তা সংস্থাটির ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে’ অন্তর্ভুক্ত করেছে।

 

 

জাতিসংঘের মতো বিশ্ব সংস্থার এ সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে একটি ঐতিহাসিক ঘটনা, বাঙালি জাতির জন্য অনেক বড় পাওয়া। যতকাল বাংলাদেশ নামক ভূখ-টি থাকবে ততকাল বেঁচে থাকবেন তার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, চির অম্লান তথা উজ্জ্বল হয়ে থাকবে ৭ মার্চের এই ভাষণ।

Print Friendly, PDF & Email
ভৈরবের জমি যাচ্ছে পেটে : কার্গো যাচ্ছে চরে: দখলবাজরা রয়েছে বহাল তবিয়তে
বঙ্গবন্ধুর কালজয়ী ভাষনে প্রকম্পিত খুলনা-ঝিনাইদহ-বাগেরহাট-নড়াইল!
ঢামেকের আইসোলেশনে ২ জনের মৃত্যু : ছিল জ্বর-সর্দি
করোনায় সোমালিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যু
অভয়নগরে মহাকাল কলেজিয়েট স্কুলের লাইব্রেরীর ছাদ ঢালাই সম্পন্ন
মোংলা ও সুন্দরবন উপকূলীয় এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছে পৌরসভা ও কোস্টগার্ড
ছুটির আওতার বাইরে থাকছে কৃষি-খাদ্য-শিল্পপণ্য পরিবহন-বিক্রি
বাগেরহাটে চুরির অপবাদ দিয়ে বাড়ি ভাংচুর-লুটপাটের বর্ণনা দেয়া গৃহবধুকে হত্যা
হাসপাতালে নয়; হটলাইনে ফোন দিলে চিকিৎসক যাবেন রোগীর কাছে
নওয়াপাড়ায় সরকারি নির্দেশ অম্যান্যের দায়ে ৬ প্রতিষ্ঠানে জরিমানা
ঘরে ছয় মাসের সন্তান রেখে করোনা যুদ্ধে ইউএনও সুমি মজুমদার
চীনে সড়ক দূর্ঘটনায় চৌগাছার শিক্ষার্থী নিহত
বেনাপোলে মদ্যপ অবস্থায় ধর্ষনের চেষ্টা : আ’লীগ নেতা আটক
অভয়নগরে গণধর্ষণ : ১৭ জনকে আসামী করে মামলা : আটক ৭
সুন্দরবনে মধু আহরণ মৌসুম শুরু
সাতক্ষীরায় খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চালসহ আটক ১
মঠবাড়িয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে খাদ্য সহায়তা দান
মঠবাড়িয়ায় রমজান উপলক্ষে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু
চীনকে ছাড়িয়ে গেলো যুক্তরাষ্ট্রে একদিনের মৃত্যুর রেকর্ড
পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ৩৭ : ৭ জনের মৃত্যু
কোটচাঁদপুরে অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান
কয়রায় স্বল্প মূল্যের দোকানে উপকৃত হচ্ছে অসহায় মানুষ
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
নওয়াপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্যানেল মেয়র রবিন অধিকারী ব্যাচাসহ ৪ জন আহত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!
এমপি কাজী নাবিল আহমেদের হাতের ছোঁয়ায় চাঁচড়া ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন
অভয়নগরে যাত্রী বেশে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের চেষ্টা : গণপিটুনিতে নিহত ছিনতাইকারী
নওয়াপাড়া কলেজের স্বর্ণযুগ : ডাক্তারী পড়ার সুযোগ পেলো ৬ মেধাবী মুখ

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

দেশের খবর এর আরও খবর