আজ মঙ্গলবার ৭ই জুলাই, ২০২০ ইং সকাল ৭:৪৬

add

অভয়নগর উপজেলা কৃষি অফিসে কি ঘটেছিল ?

নওয়াপাড়া ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯ সময় : ২৩:৪১:৩৯

সোমবার সকালে অভয়নগর উপজেলা কৃষি অফিসে সাংবাদিক ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তার মধ্যে কি ঘটেছিল? ঘটনার দিন যা ঘটেছিল তা জানালেন সাংবাদিক শেখ আতিয়ার রহমান ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আব্দুস সোবাহান। এ ব্যাপারে বক্তব্য দিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, নির্বাহী অফিসার, কৃষি কর্মকর্তা, অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ও নওয়াপাড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক।

 

উপজেলা কৃষি ভবনের কৃষি সম্প্রসারণ অফিসে সৃষ্ট ঘটনার বিষয়ে দৈনিক জন্মভূমির অভয়নগর প্রতিনিধি শেখ আতিয়ার রহমান অভিযোগ করে বলেন, গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টার সময় তিনি ও অপর এক সাংবাদিক কৃষি কর্মকর্তাকে খুঁজতে গিয়ে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তার অফিসে যান। এসময় অফিসের মধ্যে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আব্দুস সোবাহান ও অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা কৃষ্ণা রাণী মন্ডল আলাপচারিতায় ছিলেন।

 

তিনি কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তার নিকট কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানীর অফিস কক্ষের দিকে আঙ্গুল দেখিয়ে ভাই আছেন কি জানতে চান? কোন ভাই জানতে চাইলে তিনি কৃষি কর্মকর্তার কথা বলেন। একজন বিসিএস কর্মকর্তাকে ভাই বলায় কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এবং চলে যেতে বলেন। এসময় রিপন নামের একজন সাংবাদিক তার সাথে ছিল বলে তিনি জানান।

 

তিনি আরও জানান, ঘটনাটি জানার কিছুক্ষণ পর ওই অফিসে আরও দুই সাংবাদিক গেলে তাদের সাথেও একই আচরণ করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। জানতে চাওয়া হয়, সেই সময় আপনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বা ইউএনওকে বিষয়টি জানিয়েছিলেন কি? তিনি বলেন মন খারাপ ছিল বিধায় কাউকে জানায়নি। সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ ফরিদ জাহাঙ্গীরের কাছে অভিযোগ করেছেন।

 

এ ব্যাপারে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আব্দুস সোবাহান বলেন, সোমবার সকাল ১০ টার পর নাম পরিচয় না দিয়ে দুইজন ব্যক্তি তার অফিসে প্রবেশ করেন। তারা প্রশ্ন করেন- “ভাই কোথায়” উত্তরে তিনি জানান- কোন ভাই? আপনারা কি কৃষি অফিসার স্যারের কথা বলছেন? তারা বলেন- হ্যাঁ তাকে খুঁজছি। ওই সময় কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা বলেন- স্যার বাইরে আছেন।

 

আপনারা যে কাজে এসেছেন, আমাকে বললে তা মিটিয়ে দিচ্ছি। এরপর তিনি ওই দুই ব্যক্তির পরিচয় জানতে চান। তখন তাদের মধ্যে একজন দৈনিক জন্মভূমির অভয়নগর প্রতিনিধির পরিচয় দিয়ে বলেন, আপনারা গত সাতদিন ধরে ঠিকমতো অফিস করেন না। তার তদন্ত করতে এসেছি। তখন কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা বলেন, আপনারা তদন্ত করার কে? এসময় সাংবাদিকের সাথে থাকা অপর ব্যক্তি উচ্চস্বরে বলেন “চোরে চুরি করে, পুলিশে ধরে” এই কথা বলে তারা অফিস ত্যাগ করে দেখে নেবেন বলে চলে যান। ঘটনার প্রায় এক ঘন্টা পর অপর দুই ব্যক্তি সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে সকালের ঘটনার কৈফিয়ত চান তার কাছে।

 

এবং সাংবাদিকদের সাথে যে ব্যবহার করেছেন তাতে আপনি অসুবিধায় পড়বেন। এসময় তিনি তাদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনাদের শব্দচারণ সঠিক হচ্ছে না। তখন একজন বলেন আসলে আমরা সকালের ঘটনার বিষয়ে এসেছি। তিনি ওই দুইজনের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকার কর্তৃক আচরণ বিধিমালা মোতাবেক গণমাধ্যমের সাথে আমার কথা বলার সুযোগ নেই, আপনারা অফিস প্রধানের সাথে কথা বলুন।

 

তখন ওই দুই সাংবাদিক প্রশ্ন করেন আচরণ বিধিমালা কি জিনিস? তিনি আচরণ বিধিমালা সম্পর্কে ১৯৭৯ সালের সরকার কর্তৃক পরিপত্র দেখার কথা বলেন। এসময় একজন সাংবাদিক জানতে চান আপনি কোন পদে আছেন? তিনি জানান ৩৪তম বিসিএস শেষ করে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তার পদে আছেন। এরপর ওই দুইজন সাংবাদিক অফিস থেকে চলে যান। এরই কিছুক্ষণ পর একটি মোবাইল নম্বর (তদন্তের স্বার্থে মোবাইল নম্বরটি প্রকাশ করতে অপারগতা পকাশ করেছেন কৃষি অফিস) থেকে নাম পরিচয় না দিয়ে ভালোমন্দের খবর নিয়ে বলেন,

 

ভাই আপনার বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে। আপনারা ঠিকমত অফিস করেন না, আপনাদের হাজিরার ফিঙ্গার মেশিন নষ্ট করে রেখেছেন এবং সকালে কি ঘটেছিল এ প্রশ্ন করেন। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা উত্তরে বলেন আচরণ বিধিমালায় আমি কিছুই জানাতে পারিনা। পরে মোবাইল ফোনে অনেক ভয়ভীতি ও হুমকি-ধামকি দেওয়া হয় বলে তিনি জানান। কর্মকর্তা আরও বলেন, গত ১০দিন ধরে ওই মোবাইল নম্বর থেকে বিভিন্ন সুবিধা পেতে তাকে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে। এমনকি অর্থের প্রলোভনও দেখানো হয়েছে।

 

তিনি গত ১০ দিন পূর্বের একটি ঘটনা তুলে ধরে বলেন, তথ্য অধিকার আইনে একটি আবেদনপত্রে ২ হাজার কপি তথ্য চাওয়া হয়েছে। যার ফটোকপি বাবদ খরচ ৪ হাজার টাকা। ওই টাকা, সরকারি বিজ, ধানসহ বিভিন্ন সুবিধা নিতে প্রায়ই তাকে ওই মোবাইল নম্বর থেকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে বলে তিনি মাঠ পর্যায়ে তদারকি, সার-বিজ মনিটরিং ঠিকভাবে করতে পারছেননা। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক অভিযানে জরিমানা এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত বলে তিনি সন্দেহ পোষণ করেন। উক্ত নম্বর থেকে কয়েকদিন যাবৎ প্রতিনিয়িত ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন এবং বিষয়গুলির সঠিক তদন্তপূর্বক বিচার দাবি করেন।

 

সাংবাদিক শেখ আতিয়ার রহমানকে অফিস ত্যাগ করার বিষয়ে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা বলেন, আমরা একজন সাধারণ কৃষককে বেরিয়ে যেতে বলিনা, আর উনিতো সাংবাদিক পরিচয় দিয়েছিলেন। সম্পূর্ণ মিথ্যা ও মনগড়া কথা দিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। সৃষ্টিকর্তা সব দেখছেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা (অতিরিক্ত) কৃষ্ণা রাণী মন্ডলের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনাগুলোর সময় তিনি ওই অফিসেই উপস্থিত ছিলেন। কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের সাথে কোন প্রকার অসৌজন্যমূলক আচরণ বা কথা বলেননি। ঘটনার সত্যতা খুঁজে পাচ্ছিনা।

 

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ছামদানীর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, মায়ের চিকিৎসার জন্য তিন দিনের ছুটিতে ঢাকায় আছেন। তারপরও কৃষি অফিসের ঘটনাটি অনাকাক্সিক্ষত। সাংবাদিকদের কাছ থেকে এ ধরণের ব্যবহার কাম্য নয়। কৃষি অফিস যেকোন সেবা দিতে প্রস্তুত আছে। আপনাদের সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।

 

বিষয়টি সম্পর্কে অভয়নগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ ফরিদ জাহাঙ্গীর বলেন, সাংবাদিক আতিয়ার রহমান সন্ধ্যায় আমার কাছে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহীনুজ্জামান বলেন, কৃষি অফিসের সৃষ্ট ঘটনায় কোন সাংবাদিক তাঁর কাছে অভিযোগ করেনি।

 

তবে কৃষি অফিস থেকে সাংবাদিকদের অসদাচরণের বিষয়ে জানানো হয়েছে। নওয়াপাড়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মল্লিক জানান, সাংবাদিক আতিয়ার রহমানের পক্ষ থেকে প্রেসক্লাব বা আমি এখনও কোন অভিযোগ পায়নি। কৃষি অফিসের বিষয়টি জেনেছি, নিরপেক্ষ তদন্ত চলছে।

ফুলতলায় গ্রীষ্মকালীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রি-ইউনিয়ন স্কুল চ্যাম্পিয়ন
শিরোমণি বাজারে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৬টি দোকান পুড়ে ছাই
করোনায় মৃত্যুবরণকারী সকলের জন্য অভয়নগর সোসাইটি ইউএসএ, ইনক্ -এৱ বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত
বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যালে শ্রদ্ধা নিবেদন করে নওয়াপাড়া মডেল স্কুল পরিচালনা কমিটির কার্যক্রম শুরু
ঝিকরগাছায় মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুতে সমবেদনা
মহেশপুরে খাল খনন পরির্দশন করলেন এমপি চঞ্চল
শ্যামনগরে জোর পূর্বক এনজিও’র কিস্তি আদায় : বিপাকে ঋণ গ্রহীতারা
যশোরে বেতন ভাতা পরিশোধের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান
পাইকগাছায় কৃষক হচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি শক্তিশালী করার চালিকা শক্তি- এমপি বাবু
উপসর্গ নেই তবু করোনা পজিটিভ হলে যা করবেন?
বিজয়ের বাড়িতে পুলিশের তল্লাশি
ব্যক্তিগত কাজে মাঠে গিয়েছিলেন মুশফিক
শৈলকুপায় মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল করে বিল্ডিং নির্মাণের অভিযোগ
দেশের জনগন প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন প্রকারের সুবিধা পাচ্ছেন- নাসির উদ্দিন এমপি
যশোরে ডলার প্রতারক চক্রের তিন সদস্য আটক : টাকা ও ডলার উদ্ধার
কেশবপুরকে মডেল উপজেলা করতে নৌকা মার্কায় ভোট দিন-শাহীন চাকলাদার
অবশেষে কারগার থেকে মুক্তি মিললো খুলনার সেই নিরপরাধ সালাম ঢালীর
স্বাস্থ্যবিধি মেনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে হবে-শাহীন চাকলাদার
এবার করোনা আক্রান্ত পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী
ফোরিডায় ব্রেনখেকো জীবাণুর সন্ধান
চীনে আরেক মহামারির আশঙ্কা : সতর্কতা জারি
বিএনপির মুখে দুর্নীতির কথা হাস্যকর-ওবায়দুল কাদের
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
অভয়নগরে চিকিৎসকের স্ত্রীর আত্মহত্যা
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
কিস্তি দিতে না পারায় ধান ও পালিত শুকর নিয়ে গেছে সমিতির লোকেরা!
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
ফুলতলায় র‌্যাবের অভিযানে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ অভয়নগরের ৩ জন আটক
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

খুলনা বিভাগীয় এর আরও খবর

//