আজ শনিবার ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং রাত ৪:৩১

add

অভয়নগরে হাজার হাজার বিঘা জমিতে বোরো আবাদ হচ্ছে না

মফিজুর রহমান দপ্তরী
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২০ সময় : ০০:২১:৪১

অভয়নগরে ঝিকরার বিলে হাজার হাজার বিঘা জমিতে থই থই করছে পানি। ওই সব জমিতে এবছর হচ্ছেনা বোরো আবাদ। আবার যে সমস্ত মৎস্য ঘেরে বোরো আবাদ হয়ে থাকে সেগুলিতে এবার ক্ষতির পরিমাণ দ্বিগুন। কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে, বিলের মধ্যের মৎস্য ঘেরের অধিকাংশ জমির মালিকদের সাথে চুক্তি থাকে, মাছ চাষ শেষে পৌষ মাসের মধ্যে ঘেরের পানি সেচ দিয়ে বোরো আবাদের পরিবেশ করে দিতে হবে। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে তা মোটেও সম্ভব হচ্ছেনা।

 

 

এদিকে আমডাঙ্গা খাল দিয়ে পানি প্রবাহ বাড়াতে ভবদহ জলাবদ্ধতা নিরসণ আন্দোলন কমিটির উদ্যোগে খালের পলি অপসারণ ও খাল প্রসস্ত করণের কাজ চলছে। কিন্তু বিএডিসি’র অর্থায়নে প্রায় ৩০ লাখ টাকা খরচ করে আমডাঙ্গা খাল কাটা হয় এবং খালের উপর পুরাতন ব্রিজটি ভেঙ্গে প্রায় ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নতুন ব্রিজ করা হয়। সরকারের ওই অর্থ এখন কৃষকের কোন কাজেই আসছেনা বলে জানান এলাকার কৃষকেরা।

 

 

সরেজমিনে বিল ঝিকরায় গিয়ে দেখা যায়, মাঠের মধ্যে থই থই করছে পানি। কোথাও কোথাও সাদা পানি আর পানি, আবার কোথাও কোথাও পানির মাঝে সরু মৎস্য ঘেরের পাড়। ঝিকরার বিলের মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী ধোপাদী গ্রামের শফিকুল ইসলাম জানায়, ঘের পানিতে ভরে গেছে। পানি পার না হতে পারায় এবার ঘেরে ধানও হবেনা আবার মাছ চাষ করাও সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি আরও জানান, এই সময় আমরা ঘের থেকে পানি সেচ দিয়ে ঘেরের মধ্যে বোরো ধান চাষ করতাম, কিন্তু এবার ধান করাতো সম্ভবই হচ্ছেনা। এতে কৃষকেরা চরম ক্ষতির মুখে পড়বে।

 

 

মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী শের আলী দপ্তরী জানান, এবার বিলে ধান হবেনা তাই মনে করেছিলাম ঘের পানিতে ভরে গেছে এবার মাছ চাষ করব কিন্তু তারও কোন উপায় নেই। কারণ ঘেরে যে পরিমাণ পানি রয়েছে তার মধ্যে মাছ ছাড়লে যদি নতুন করে পানির চাপ দেয় কিংবা বৃষ্টি হয়, তহালে আসল-ফসল দুটোই যাবে। ফলে পথে বসে যাওয়ার ভয়ে কোনটাই করা সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের এখন উভয় সংকট অবস্থা চলছে। এরকম অবস্থায় থাকলে কৃষকদের অনাহারে দিন কাটবে।

 

 

লক্ষীপুর গ্রামের কৃষক হোসেন আলী জানান, আমাদের প্রধান ফসল হচ্ছে বোরো চাষ, এই চাষ না করতে পারলে আমরা পথে বসে যাব। আমাদের সহায় সম্বল বিক্রি করে পথে উঠে যাওয়া ছাড়া কোন উপায় থাকবে না। তাছাড়া মাঠভরা পানি কৃষকদের প্রধান ফসল বোরো আবাদ নিয়ে যে দু:শ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছে তা সরকারের সহযোগীতা ছাড়া আমাদের বেঁচে থাকার কোন উপায় নেই।

 

 

এব্যাপারে অভয়নগর উপজেলা কৃষি অফিসার গোলাম সামদানির সাথে কথা বললে তিনি জানান, উপজেলার বিভিন্ন বিলে পানি জমে থাকায় এবার বোরো আবাদ নিয়ে চরম সংকট দেখা দিয়েছে। তবে আমডাঙ্গা খাল দিয়ে কিছু পানি ভৈরব নদে নিষ্কাশন হচ্ছে যা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম। তিনি আরও জানান, বোরো আবাদ না হলেও কিছু আগে আমন চাষটা বেশ ভালো হয়েছে।

 

 

কারণ আমনের সময় পানি কম থাকায় এবং ওই সময় খাল দিয়ে পানি নিষ্কাশন হওয়ায় কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পেরেছে কৃষকেরা। তবে এ এলাকার প্রধান ফসল বোরো চাষ সঠিক ভাবে না করতে পারলে কৃষকেরা ক্ষতিগ্রস্থ হবে। এ বিষয়গুলি নিয়ে ইউএনও স্যারের সাথে কথা হয়েছে, এর একটা সমাধান কিভাবে করা যায় সে চেষ্টা আমাদের অব্যহত আছে।

 

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুসেইন খান জানান, সম্প্রতি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এসেছিলেন তখন আমডাঙ্গা খাল পরিদর্শন করে তিনি একটি প্রকল্পের কথা জানিয়ে ছিলেন। আমরা চেষ্টা করছি ওই প্রকল্পের আওতায় কোন সমাধান করা যায় কি-না। তাছাড়া বিল ঝিকরার রাজাপুর-গোবিন্দ এলাকার কৃষকেরা নিজেদের অর্থায়নে পানি সেচ করে বোরো আবাদ করে থাকে। কিন্তু এবছর পানির চাপ এত বেশি যে, পানি সেচ করতে যে পারিমাণ খরচ হবে তা বোরো আবাদ করে পুষিয়ে ওঠা যাবেনা বলে এবছর পানি সেচ করতে আগ্রহী হচ্ছেনা স্থানীয় কৃষকেরা।

 

 

সরকারীভাবে কোন ব্যবস্থা করা যায় কি/না সে ব্যাপারে আমাদের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে। এ ব্যাপারে ভবদহ জলাবদ্ধতা নিরসণ আন্দোলন কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এনামুল হক বাবুল জানান, কৃষকদের কথা চিন্তা করে নিজেদের অর্থায়নে আমডাঙ্গা খাল প্রশস্ত করণের কাজ শুরু করা হয়েছে।

 

 

গত প্রায় এক সপ্তাহ যাবৎ স্কেভেটর দিয়ে খালের গভীরতা বাড়ানোর কাজ চলছে। খালের গভীরতা বাড়লে ভৈরব নদে পানি নিষ্কাশন করা সম্ভব হবে, সেই লক্ষে এই কাজ করা হচ্ছে। তাছাড়া সম্প্রতি মন্ত্রী মহোদয় পরিদর্শন করে একটি প্রকল্প এবং দ্রুত টিআরএম বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছেন। আশা করি দ্রুত সমাধান হবে।

অভয়নগরে রাজ টেক্সটাইল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আমার টিফিন অনুষ্ঠিত
দুর্নীতি দেশের উন্নয়নকে বাঁধাগ্রস্থ করে- বিভাগীয় কমিশনার
দুই স্কুলের আবারও সভাপতি হলেন ইমদাদুল হক ইমু
করোনা আতংকের মাঝেও বেপরোয়া বেনাপোল ও সাতক্ষীরা সীমান্তের সোনা পাচারকারীরা
ত্রাণ বিতরণের পাশাপাশি নৌবাহিনীর বৃক্ষরোপন অভিযান অব্যাহত
চিকিৎসাবিজ্ঞানের উন্নয়নে টাস্কফোর্স গঠন করতে হবে – আ স ম রব
সুস্থ হয়েছেন আফ্রিদি!
সাঙ্গাকারাকে ১০ ঘণ্টা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদ
দৈনিক নওয়াপাড়ার প্রতিনিধি আশাশুনি প্রেসকাবের সদস্য মুকুল’র পিতার জানাযা সম্পন্ন
শার্শায় ইঞ্জিন চালিত ভ্যানের ধাক্কায় শিশু মৃত্যু
খুলনায় করোনা ও উপসর্গে আরও তিনজনের মৃত্যু : নতুন শনাক্ত ৯৩
বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী মাদক ব্যবসায়ী নিহত
ঝিনাইদহে নসিমন উল্টে চালক নিহত
চৌগাছায় বিদ্যুৎ স্পর্শে এক ব্যক্তির মৃত্যু
ইতালি- ফ্রান্সের পর এবার ব্রাজিলেও পানিতে করোনাভাইরাস!
সুন্দরবনের বিষ দস্যুদের বিরুদ্ধে পুলিশের বিশেষ অভিযান শুরু
আগস্টেই বাজারে আসতে পারে ভারতের ভ্যাকসিন!
করোনায় মুক্তিযোদ্ধা খুরশিদ আলমের মৃত্যু
গরু দেখতে প্রতিদিন শত শত নারী-পুরুষের ভীড় : খবর জানে না প্রাণী সম্পদ অফিস
সাহারা খাতুনকে থাইল্যান্ডে নেওয়া হচ্ছে সোমবার
ঢামেকের সিটি স্ক্যান বিভাগে রোগী নেই কেন? প্রশ্ন জাফরুল্লাহর
প্রধানমন্ত্রীকে যখন আমি পাটকলের বিষয়ে জানাই তখন মনে হলো উনি কাঁদছেন- মন্নুজান সুফিয়ান
‘গোয়াল ঘর আপনার গরু আমাদের’ লিখে গরু চুরি : গণপিটুনিতে নিহত তিন : আটক এক
যশোরের ৬টির মধ্যে ৪টিতে আসছেন বর্তমান এমপি
অভিযোগ বাক্স ঝুঁলিয়েছেন এমপি তন্ময় : আতংকে মাদক সিন্ডিকেট
করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির লক্ষে বিশেষ দোয়া ও লিফলেট বিতরণ করলেন- নওয়াপাড়ার গদ্দীনশীন পীর
সিপাই থেকে ওসি হয়ে শতকোটি টাকার পাহাড়! দুদকে অভিযোগ
কোথাও ঠাঁই নেই : কবরস্থানে মা- ছেলের বসবাস
অভয়নগরে চিকিৎসকের স্ত্রীর আত্মহত্যা
নওয়াপাড়ার ধোপাদী গ্রামে ৩ ইভটিজারকে গণধোলাই
যশোরের নতুন পুলিশ সুপার হলেন আশরাফ হোসেন
লোহাগড়া হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু রোগীকে বের করে দিয়েছেন সেবিকা কল্পনা ও সাধনা!
বাঘারপাড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করে জয়নবের লাশ ঘেরে ফেলেছে হাফেজ মুজিবুল
নিষিদ্ধ ঘোষিত এনার্জি ড্রিংক্স
যশোর শিক্ষাবোর্ডের সাড়ে ২৯ লাখ টাকা অপচয় বন্ধ করে দিলেন ড. মোল্লা আমীর হোসেন
রাজগঞ্জে কাজীকে ৬ মাসের জেল, মেয়ের পিতা চাচা ও স্বামীকে জরিমানা
কিস্তি দিতে না পারায় ধান ও পালিত শুকর নিয়ে গেছে সমিতির লোকেরা!
নওয়াপাড়ায় মাছ বাজারে ১ কেজি বাটখারার ওজন ৮শ’ গ্রাম :
ফুলতলায় র‌্যাবের অভিযানে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ অভয়নগরের ৩ জন আটক
পথ দেখালো মডেল স্কুল :অনুসরণ করলো আল হেলাল: নওয়াপাড়ায় গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় আবারও সংঘর্ষ : নদী সাঁতরে প্রাণ রক্ষার চেষ্টা
অভয়নগরে এই প্রথম করোনা রোগী শণাক্ত
 চোখের জল ফেলবেন নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সরোয়ার!

ই-পত্রিকা-কাগজে যেমন অনলাইনে তেমন

ePaper

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা : ০১৭১৭৮১৩৩৪৪

নওয়াপাড়া রেলওয়ে মাষ্টার : ০১৭১৮৫৮১০৯৪

হাইওয়ে থানা ওসি : ০১৭৬৯৬৯০৪৫৯

UNO অভয়নগর : ০১৭৩৩০৭৪০৩৫

অভয়নগর থানা : ০১৭১৩ ৩৭৪১৬৭

ফায়ার সার্ভিস : ০১৭৩২ ৫৫০৪৬০

জাতীয় জরুরী সেবা : ৯৯৯

খুলনা বিভাগীয় এর আরও খবর

//