অভয়নগরের শংকরপাশা-আমতলা সড়ক চলাচলের অনুপযোগী

যশোরের অভয়নগর উপজেলার শংকরপাশা-আমতলা সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। একাধিক বার পত্রিকায় সংবাদ পরিবেশন করলেও কর্তৃপক্ষের নজরে আসছেনা।

যে কারণে পথচারীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। খানা-খন্দ ও কাদায় পরিপূর্ণ সড়কের ১৮ কিলোমিটার এখন জনদুর্ভোগে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। দ্রুত সংস্কারের দাবি ইউনিয়নবাসীর। জানা গেছে, উপজেলার শ্রীধরপুর ইউনিয়নের শংকরপাশা ফেরিঘাট থেকে সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নের আমতলা বাজার পর্যন্ত সড়কটি স্বাধীনতার পর এলজিইডি নির্মাণ করে।

প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ও যানবাহন চলাচলের সড়কটি উপজেলার শ্রীধরপুর, বাঘুটিয়া, শুভরাড়া ও সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নে সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম। এছাড়া নড়াইল জেলার কয়েকটি উপজেলার সাথেও সংযুক্ত আছে সড়কটি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সড়কের শুরু থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার পর্যন্ত খানা-খন্দা। কিছু কিছু স্থানে পিচের উপর ইটের সোলিং করা হয়েছে।

কর্দমাক্ত পিচঢালা সড়কটি যেন গ্রামের মেঠোপথে পরিণত হয়েছে। সড়কে মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক কাদায় পরিপূর্ণ গর্তে আটকা পড়েছে। মালামাল আনলোড করে ট্রাকটি গর্ত থেকে উঠানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এসময় ওই ট্রাকের চালক আব্দুল করিম ক্ষোভের সাথে জানান, দেখার কেউ নেই! কাদা ও গর্তে গাড়ি চালাতে কষ্ট হয়। আর বৃষ্টি হলে মহাবিপদ। কয়েকদিন আগে তিনটি স্প্রিংপাতি পাল্টাতে হয়েছে।

চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় মালিক এই সড়কে চলাচল করতে নিষেধ করেছেন। কেন আসলেন এমন প্রশ্নে বলেন, পেটের দায়ে এসেছি। শংকরপাশ গ্রামের বাসিন্দা মোজাফ্ফার আহমেদ বলেন, প্রায় ৫ বছর আগে এই সড়কে সংস্কার কাজ হয়েছিল। এরপর জনপ্রতিনিধি ও এলজিইডি কর্তৃপক্ষের আশ্বাস ছাড়া সংস্কারে কোন অগ্রগতি চোখে পড়েনি। জনদুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

শ্রীধরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী জানান, শংকরপাশা-আমতলা সড়ক মেরামতের জন্য এমন কোন দপ্তর নেই যোগাযোগ করিনি। এখন আল্লাহ’র উপর ছেড়ে দিয়েছি। প্রতিদিন দুর্ঘটনা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী নিতে চরম বিড়ম্বনাসহ বিভিন্ন সমস্যার এই সড়ক এখন চার ইউনিয়নবাসীর জন্য অভিশাপে পরিণত হয়েছে। সরকারের সুদৃষ্টি প্রয়োজন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সরদারের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, শংকরপাশা-আমতলা সড়ক সংস্কারের টেন্ডার হয়েছে। প্রায় ২৪ কোটি টাকার কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যে শুরু হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আর্কাইভ হতে খুঁজুন

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১